রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১১:০৩ অপরাহ্ন

প্রশাসন ও আ.লীগ গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে–মির্জা ফকরুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ সংসদ নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মধ্য দিয়ে মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন সম্পূর্ণভাবে গণশত্রুতে পরিণত হয়েছে।’

ভোটের রাতে নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণের শিকার নারীকে দেখতে যাওয়ার পথে কুমিল্লার একটি রেস্টেুরেন্টে যাত্রাবিরতিকালে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব।

গত ৩০ ডিসেম্বর ভোটের রাতে বাড়িতে ঢুকে ওই নারীকে ধর্ষণ করা হয়। ভুক্তভোগীর স্বামীর অভিযোগ, ধানের শীষে ভোট দেওয়ায় এই ঘটনার শিকার হয়েছেন তারা। তবে পরে তিনি মামলায় বলেন, পূর্ব শত্রুতার কথা। যদিও জানা যায়, তিনি নিজে নয়, এজাহার লিখে দিয়েছে পুলিশ।

ঘটনাটি জানাজানি হলে সারাদেশে তোলপাড় শুরু হয়। নড়েচড়ে বসে প্রশাসনও। পরে অভিযান চালিয়ে মামলার মূল হোতাসহ এ পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

ঘটনার পর ঢাকা থেকে মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত দল এবং পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ছয় দিন পর ওই নারীতে দেখতে যাচ্ছে ঐক্যফ্রন্ট নেতারা।

কুমিল্লায় যাত্রাবিরতিকালে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘নির্বাচনী সহিংসতায় সারাদেশে আজ ত্রাস এবং ভীতি-নৈরাজ্যর সৃষ্টি হয়েছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা দেখেছি নোয়াখালীতে আমাদের একটি বোন ধর্ষিতা হয়েছে। ধর্ষণসহ সারা বাংলাদেশের সহিংসতার আমরা নিন্দা জানিয়েছি। সহিংসতা প্রতিরোধ করতে আমরা জনগণের কাছে আহবান জানিয়েছি। নির্বাচন কমিশনের কাছেও আমরা বলেছি তাদের উচিত এই সহিংসতা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করা।’

যাত্রাকালে আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের সিদ্দিকী এবং বিএনপি নেতা শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com