বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৯, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন

মাশরাফিকে মন্ত্রী করার দাবিতে মানববন্ধন

নিউজ ডেক্স : প্রধানমন্ত্রীর ‘হীরের টুকরা’ নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজাকে মন্ত্রী করার দাবিতে মানববন্ধন করেছে নড়াইলবাসী। শনিবার সকালে নড়াইল প্রেসক্লাবের সামনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন নড়াইল সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মলয় কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক শরফুল আলম লিটু, নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট আলমগীর সিদ্দিকী, সাবেক সভাপতি এনামুল কবির টুকু, নড়াইল পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল বিশ্বাস, জেলা মহিলা পরিষদের চেয়ারম্যান সালমা রহমান কবিতা, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি আসলাম খান লুলু, নারী নেত্রী আঞ্জুমান আরা, নানজিন সুলতানা রোজি, ইসমত আরা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান লিটু, শামীমূল ইসলাম টুলু প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, দেশের খেলাধুলা, সংস্কৃতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে টেকসই উন্নয়নের জন্য নড়াইল-২ আসনের এমপি মাশরাফির যোগ্যতা রয়েছে। সে এমপি হলে শুধু নড়াইল নয় গোটা দেশ উপকৃত হবে। দেশকে এগিয়ে নিতে তার মতো ভালো এবং সৎ মানুষের প্রয়োজন।

বক্তারা বলেন, রাজনীতির মাঠে নেমেই বিশাল ছক্কা মারলেন এবং জয় ছিনিয়ে নিলেন নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত মাশরাফি বিন মর্তুজা। খেলোয়াড় থেকে রাজনীতিবিদ মাশরাফি এখন দেশের সেবা করার জন্য প্রস্তুত। তাকে নিয়ে নতুন স্বপ্ন দেখছে নড়াইলবাসী। তাদের প্রত্যাশা, প্রধানমন্ত্রী মাশরাফিকে মন্ত্রিসভায় স্থান দিয়ে আরেকটি উদাহরণ সৃষ্টি করবেন।

তারা বলেন, আওয়ামী লীগ ছাড়াও দলমত নির্বিশেষে মানুষ মাশরাফিকে ভালোবেসে এবং প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের সঙ্গে একাত্ম হয়ে নৌকায় ভোট দিয়েছে। নড়াইলের উন্নয়নে মাশরাফি ব্যাপক ভূমিকা রাখতে পারবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তাকে যদি মন্ত্রিত্ব দেন তাহলে অবহেলিত এ জনপদে ব্যাপক উন্নয়ন হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসনে ঐতিহাসিক জয় পান মাশরাফি বিন মর্তুজা। সৎ এবং নির্লোভ এই মানুষ বিজয়লাভের পর সাংবাদিকদের এক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, জেলার যোগাযোগ ব্যবস্থার টেকসই উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, কৃষি, খেলাধুলার উন্নয়নে কাজ করবেন তিনি।

প্রসঙ্গত, নড়াইল-২ (লোহাগড়া-সদরের একাংশ) আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাশরাফি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন বিপুল ভোটের ব্যবধানে। নৌকা প্রতীকে তিনি পেয়েছেন দুই লাখ ৭১ হাজার ২১০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ২০ দলীয়জোট মনোনীত প্রার্থী এনপিপির চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ফরহাদ ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৭ হাজার ৮৮৩ ভোট। দুইজনের ভোটের ব্যবধান ২ লাখ ৬৩ হাজার ৩২৭ ভোট। নড়াইলের ইতিহাসে এত বেশি ব্যবধানের বিজয় আর কেউ পাননি বলে জানা গেছে।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com