রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ১১:২৪ অপরাহ্ন

জমে ওঠেনি বানিজ্য মেলার বেচাকেনা

নিউজ ডেক্স : ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা মেলার দ্বিতীয় দিনে বৃহস্পতিবার দুপুরের পর থেকে দর্শনার্থীদের ভিড় বাড়তে থাকে। বিকেল হতে না হতেই মানুষে একরকম পূর্ণ হয়ে যায় পুরো মেলা প্রাঙ্গণ। লোভনীয় খাবার আর হরেক রকমের পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছে বাণিজ্যমেলার স্টলগুলো। সব মিলে বলা যায়, ক্রেতা-দর্শনার্থীদের পদচারণায় প্রথম দিকেই জমে উঠেছে মেলা।সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, মেলায় অধিকাংশ মানুষই ঘুরতে এসেছেন। আর তার মধ্যে বেশির ভাগই তরুণ-তরুণী। তবে বেচাকেনা তেমন একটা শুরু হয়নি এখনও। বিক্রি এখনও শুরু হয়নি এমনটি বলছেন ক্রেতারাও। তবে তাদের আশা দেশের রাজনৈতিক পরিবেশ ভালো থাকলে দর্শনার্থীর আগমন বেশি হবে। আর তখনই বিক্রিও ভালো হবে।

মেলা প্রাঙ্গণে এখনো বিভিন্ন স্টলের কাজ বাকি রয়েছে। চলছে স্টল বানানো এবং পণ্য দিয়ে সাজানোর কাজ। কর্তৃপক্ষ বলছে, কয়েকদিনের মধ্যেই শেষ হবে মেলার প্রাঙ্গণের স্টলের সব প্রস্তুতি।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর উপপরিচালক ও বাণিজ্যমেলার সদস্য সচিব আবদুর রউফ বলেন, বিদেশি স্টলের কার্যক্রম শুরু হতে সবসময় একটু দেরি হয়। বিদেশি মালপত্র আনতে কাস্টমসে যেন কোনো সমস্যা না হয়, সেদিকে আমাদের নজর রয়েছে। আমরা এরই মধ্যে কাস্টমসকে চিঠি দিয়েছি। আশা করি আগামী সপ্তাহের মধ্যে সবাই পুরোদম কার্যক্রম শুরু করতে পারবে। মেলা শুরু পর প্রথম ছুটির দিন শুক্রবারই মেলা জমে উঠবে বলে আমাদের প্রত্যাশা।

মেলায় আগত সাইফুল ইসলাম নামে এক দর্শনার্থী বলেন, আজ মেলায় আশা মূলত ঘুরতে। এর মধ্যে কোনো পছন্দের পণ্য কম দামে পেলে অবশ্যই কেনার ইচ্ছা আছে।

আরেক দর্শনার্থী শিউলি বেগমও বললেন একই কথা। তিনি জানান, পরিবার নিয়ে মেলায় এসেছি। তবে এখনই কিছু কেনার উদ্দেশে নয়। ঘুরতেই মূলত আসা। ঘুরতে এসেও এখন পর্যন্ত শাল ও ব্লেজার কিনেছি। মনে হচ্ছে কম দামেই পেয়েছি।

কাশ্মীরি শাল ঘরের সেলস এক্সিকিউটিভ সুজন বলেন, এবার বিক্রি ভালো হবে মনে হচ্ছে। দ্বিতীয় দিনেই দর্শনার্থীর সঙ্গে বেড়েছে বিক্রিও। আশা করি এবারের মেলায় অন্যবারের চেয়ে বিক্রি ভালো হবে।

মেলায় ঘুরতে আসা মিরপুরের বাসিন্দা মাসুদ রানা বলেন, প্রায় গোটা মেলা ঘুরে দেখলাম। এখনও সব স্টল প্রস্তুত নয়। তবে মেলার পরিবেশ দেখে ভালোই লাগছে।’ ফার্মগেট থেকে আসা তেজগাঁও কলেজের শিক্ষার্থী নবনিতা বলেন, বন্ধুদের নিয়ে ঘুরতে এসেছি। সবাই মিলে আনন্দ করছি। তবে সব স্টল বা প্যাভিলিয়নের কাজ শেষ হয়নি।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর তথ্যমতে, মাসব্যাপী এ মেলা ৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে। মেলার গেট ও বিভিন্ন স্টল প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। প্রাপ্ত বয়স্কদের প্রবেশের জন্য টিকিটের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। তাছাড়া এবারই প্রথম মেলার টিকিট অনলাইনেও পাওয়া যাবে।

মেলায় প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরাঁ ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে রয়েছে প্যাভিলিয়ন ১১০টি, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩টি ও রেস্তোরাঁসহ অন্যান্য স্টল ৪১২টি। এবার বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের ৫২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে। দেশগুলো হলো থাইল্যান্ড, ইরান, তুরস্ক, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, নেপাল, চীন, মালয়েশিয়া, ভিয়েতনাম, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ভারত, পাকিস্তান, হংকং, সিঙ্গাপুর, মরিশাস, দক্ষিণ কোরিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান।

এর আগে বুধবার বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এরপর তিনি মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com