বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ০৫:১৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
স্বাধীনতা দিবসে দেশবাসীকে জয় উপহার দিলেন ফুটবলাররা নগরীতে নারীসহ অপহরনকারীচক্রের ৩ সদস্য আটক : অপহৃত ব্যাক্তি উদ্ধার রাজশাহী হোমিওপ্যাথিক কলেজের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত চাকুরীচ্যুত সেনা কর্মকর্তা কর্নেল মোঃ শহীদ উদ্দিন খান পর্বঃ ১ বিএনপি ১২ কাউন্সিলরের আওয়ামী লীগে যোগদান বিএনপির মধ্যে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সামর্থ্যের অভাব রয়েছে : তথ্যমন্ত্রী পরীক্ষা চলাকালে কোচিং খোলা থাকলে ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে পদ্মায় নিখোঁজ-১ রাজশাহীস্থ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সমিতির উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত শিবগঞ্জে আ.লীগের দু’গ্রুপের বাড়ি-ঘরে হামলা ভাঙচুর, ইউপি চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতা কারাগারে

নারীদের জন্য আলাদা করে ভাবতে হবে—তামান্না চৌধুরী

লাইফস্টাইল ডেস্ক : : ব্যস্ত জীবনে আমরা এতটাই অভ্যস্ত হয়ে গেছি যে, সুস্থতার খবর নেয়ারও সময় নেই আমাদের। শরীরের নানা সমস্যার সমাধান হাসি মুখে দেন পুষ্টিবিদ তামান্না চৌধুরী।অ্যাপোলো হাসপাতালের প্রধান পুষ্টিবিদ তামান্না চৌধুরী যখন কথা বলেন, রোগী অর্ধেক ভালো হয়ে যান তামান্নার মিষ্টি ব্যবহারে।

তামান্নার কাজের পরিধি শুধু হাসপাতালের চার দেয়ালেই আটকে নেই। ওয়ার্ল্ড ব্যাংক, ইউনিসেফ, সেভার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানে অতিথি বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন তিনি। বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে পুষ্টিবিদ হিসেবে আমন্ত্রণ পান। পত্রিকা ও অনলাইন সাইটগুলোতে নিজেই লেখেন কীভাবে মানুষ সুস্থ থাকবেন।

পুষ্টিবিজ্ঞানকে বাংলাদেশে একটি উঁচু আসন দেওয়ার জন্য, এ বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। তামান্না বলেন, ‘প্রথম দিকে যখন রোগী দেখা শুরু করেছি, রোগীরা জিজ্ঞেস করতেন ডায়েটেশিয়ান আবার কী? বোঝাতে অনেক সময় লেগেছে। যে পুষ্টিও চিকিৎসার একটি দিক। যেখানে ওষুধের পাশাপাশি খাদ্য নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি বোঝানো হয়। আর এখন এমনও দিন যায় রোগীরা আমার অ্যাপয়েনমেন্ট পান না। মানুষ এখন খাদ্যে পুষ্টির বিষয়ে অনেক সচেতন হয়েছে।’

‘মার কাজের জন্য আমার পরিবারকে অনেক ত্যাগ করতে হয়। প্রথমে আমার বাবা এরপর স্বামী ও সন্তানদের প্রতি খুব কৃতজ্ঞ। তারা আমাকে কাজ করার জন্য অনেক সহোযোগিতা করে। পরিবার থেকে সম্পূর্ণ সাহায্য না পেলে একজন মেয়ের জন্য কাজ করা ভীষণ কঠিন।’

তিনি বলেন, ‘দেশের নারীদের অনেক বড় একটা অংশ পুষ্টির অভাবে রক্তস্বল্পতায় ভুগছেন। তাদের জন্য কাজ করার সুযোগ এসেছে। স্বাধীনতার এত বছর পরে এসেও আমরা শুধু উঁচু তলার মানুষ দেখে যদি তৃপ্তি পাই, মনে রাখতে হবে এটা পুরো দেশের চেহারা না। আর নারী বলতে সব নারীকে বোঝায়। এখনো নারীদের সাধারণ স্বাস্থ্য-শিক্ষাও পুরোটা জানা নেই। বাল্য বিয়ে কমেছে, তবে বন্ধ হয়নি। অল্প বয়সে মা হতে গিয়ে এখনো নারীর মৃত্যু হয়। সবাইকে নিয়ে কাজ করে এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে হবে।’


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com