বুধবার, ২৭ মার্চ ২০১৯, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
স্বাধীনতা দিবসে দেশবাসীকে জয় উপহার দিলেন ফুটবলাররা নগরীতে নারীসহ অপহরনকারীচক্রের ৩ সদস্য আটক : অপহৃত ব্যাক্তি উদ্ধার রাজশাহী হোমিওপ্যাথিক কলেজের উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত চাকুরীচ্যুত সেনা কর্মকর্তা কর্নেল মোঃ শহীদ উদ্দিন খান পর্বঃ ১ বিএনপি ১২ কাউন্সিলরের আওয়ামী লীগে যোগদান বিএনপির মধ্যে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সামর্থ্যের অভাব রয়েছে : তথ্যমন্ত্রী পরীক্ষা চলাকালে কোচিং খোলা থাকলে ব্যবস্থা : শিক্ষামন্ত্রী রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে পদ্মায় নিখোঁজ-১ রাজশাহীস্থ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সমিতির উদ্যোগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত শিবগঞ্জে আ.লীগের দু’গ্রুপের বাড়ি-ঘরে হামলা ভাঙচুর, ইউপি চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতা কারাগারে

রাজশাহীতে ছাত্রলীগ নেতা হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল অ্যান্ড কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি হত্যা মামলায় তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল। একই সঙ্গে এ মামলার অপর সাত আসামীকে খালাস দেয়া হয়। বুধবার দুপুরে রাজশাহীর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক অনুব কুমার এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, নগরের মেহেরচন্ডি এলাকার হাসান হকের ছেলে সেতু ইসলাম, বাবু কসাইয়ের ছেলে বাবলা ও বাবলু ড্রাইভারের ছেলে সোহাগ।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এন্তাজুল হক বাবু বলেন, ‘‘যাবজ্জীবন কারাদান্ড ছাড়াও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে সেতু ইসলাম পলাতক রয়েছেন। রায় ঘোষণার সময় সেতু ছাড়া সবাই আদালতে হাজির ছিলেন।’’

তিনি বলেন, মেহেরচন্ডি এলাকার এক নারী লেফটব চুরির জের ধরে সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের সঙ্গে রবিউল ইসলামের দ্বন্দ্ব হয়। সে দ্বন্দ্বের জের ধরে তাকে কুপিয়ে জখম করে আসামীরা।’

আইনজীবী এন্তাজুল হক জানান, ২০১৩ সালের ১৪ এপ্রিল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা মাঠে মেহেরচন্ডি এলাকার নসু মিয়ার ছেলে রবিউল ইসলাম রবিকে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করা হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে নেওয়ার পথে মারা যায়। এ ঘটনার পরদিন রবির বড় ভাই শফিকুল ইসলাম বোয়ালিয়া থানায় একটি মামলা করেন। মামলায় মেহেরচন্ডি এলাকার সেতু, বাবলা, সোহাগসহ ১২ জনের নাম উল্লেখ্য করে ১৮ জনকে আসামী করা হয়। বোয়ালিয়া থানার এসআই হাফিজ উদ্দিন মামলার তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ৫ মে ১০ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। গত বছর মামলটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয়।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com