মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯, ০৬:৫২ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

বড়াইগ্রামে মেয়েদের পিটিয়ে বিধবার ধান কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষরা

বড়াইগ্রাম (নাটোর) প্রতিনিধি : নাটোরের বড়াইগ্রামে জোরপূর্বক সাহানা পারভীন নামে এক বিধবা মহিলার ৬০ শতাংশ জমির পাকা গম কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষরা। এ সময় তাদেরকে বাধা দেয়ায় ঐ মহিলার দুই মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে তারা। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। জমির মালিক সাহানা পারভীন উপজেলার গড়মাটি গ্রামের মৃত আবুল কালাম আযাদের স্ত্রী।
স্থানীয়রা জানান, প্রায় সাত বছর আগে স্বামী মারা গেলে সাহানা পারভীন দুই মেয়েকে নিয়ে বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। এ সময়ে দলিলমূলে জমিটি তারা ভোগ দখল করলেও প্রতিপক্ষ মরিয়ম বেগম, সিরাজুল ইসলাম ও রিপন জমিটি তাদের বলে দাবী করে আসছিলেন। এ নিয়ে গ্রামে একাধিক সালিশ মিটিং হলেও তারা তাদের দাবীর স্বপক্ষে কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। শুক্রবার সকালে সিরাজ ও রিপন ১৫-২০ জন লোক নিয়ে বিবাদমান জমি থেকে পাকা গম কেটে নিয়ে যায়। এতে বাধা দেয়ায় ঐ মহিলার বড় মেয়ে শুকতারা খাতুন (২৭) ও ছোট মেয়ে পাবনা সরকারী বুলবুল কলেজের অনার্সের ছাত্রী শারমিন খাতুন (২১) কে পিটিয়ে আহত করে। পরে স্বজনেরা তাদেরকে উদ্ধার করে বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সিরাজুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি জমিটি তাদের বলে দাবী করে বলেন, আমাদেরও এ জমির দলিল আছে। তবে সে দলিল গ্রাম্য সালিশে না দেখিয়ে জোরপূর্বক দখলে যাচ্ছেন কেন জানতে চাইলে তিনি কোন উত্তর দিতে পারেননি।
বড়াইগ্রাম থানার উপ-পরিদর্শক বাবুল হোসেন জানান, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com