বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ০৭:৫৩ অপরাহ্ন

ময়মনসিংহে নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে বাবা আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় ৭ মাস ধরে নিজের কন্যা শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে আলাল হুদা নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগীর মায়ের দায়ের করা মামলায় শুক্রবার রাতে উপজেলার দুল্লা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলী মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, দুল্লা ইউনিয়নের কুড়িপাড়া গ্রামে ৭ মাস ধরে মেয়েকে ধর্ষণ করে আসছিল তারই জন্মদাতা বাবা। মেয়েটি স্থানীয় একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। আলাল হুদা পেশায় অটোরিকশা চালক। তার তিন মেয়ে। বড় মেয়ে স্থানীয় হাইস্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে লেখাপড়া করে। ভুক্তভোগী মেয়েটি পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিয়েছে এবং অভিযুক্ত হুদাও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। ওই মেয়ে এবং অভিযুক্তকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অভিযোগের বরাত দিয়ে ওসি জানান, এই মেয়েকে গত সাত মাস ধরে নানা প্রলোভন ও ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে আসছিল। মেয়ের আকুতি ও বাধার পরও বাবার লালসা থেকে রেহাই পায়নি সে। পরে শিশুটি ঘটনাটি তার মাকে জানায়। শুনে ঘটনার প্রতিবাদ করেন মা। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মা-মেয়ে দু’জনকেই বিভিন্ন সময় মারধর করে আলাল হুদা। নীরবে সহ্য করতে থাকে মা ও মেয়ে।

এরপরও তা অব্যাহত থাকলে সাতদিন আগে মেয়েদের নিয়ে ঘর ছেড়ে যান মা। পরে স্বামী আলাল হুদার অনুরোধে শুক্রবার বাড়িতে ফিরে আসেন তারা। বাড়িতে আসার পরও স্বামীর মতলব খারাপ দেখে স্থানীয় এক ইউপি সদস্যকে বিষয়টি খুলে বলেন ওই মা। ইউপি সদস্য ঘটনা জানার পর বিকালে বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেন। পরে রাত ৯টার আলাল হুদাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে ওসি জানান।

মেয়েটির মা বলেন, চোখের সামনে মেয়ের সর্বনাশ দেখে স্থির থাকতে পারিনি। কোনো উপায় না দেখে স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানাতে বাধ্য হই। শিশুটির মা বলেন, আমি নিজে বাদী হয়ে মামলাও করেছি। মেয়ের ধর্ষণকারী কোনো ব্যক্তি আমার স্বামী হতে পারে না। তাই আমি এর সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com