শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯, ১২:০২ পূর্বাহ্ন

গোদাগাড়ীতে গ্রাম্য শালিসে জুতাপেটার অপমানে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

গোদাগাড়ীতে গ্রাম্য শালিসে জুতাপেটার অপমানে স্কুলছাত্রের আত্মহত্যা

মিনাল ইসলাম,গোদাগাড়ী প্রতিনিধি: গ্রাম্য শালিসে জুতাপেটার অপমান সইতে না পেরে রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে আত্মহত্যা করেছে এক স্কুলছাত্র। মৃত জসিম উদ্দিন মাটিকাটা ইউনিয়নের শাহাব্দিপুর গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। সে পিরিজপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে সরমংলা আমতলা এলাকা থেকে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

জসিমের বড় ভাই রাশিদুল জানান, বুধবার রাতে তারাবীর নামাজের সময় বান্ধবীর সাথে দেখা করতে যায় পিরিজপুর গ্রামে যায় সে।সে রাস্তায় তার বান্ধবীর সঙ্গে কথা বলছিল তার সঙ্গে আরও তিনজন বন্ধু ছিল, বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয় লোকজন তাকে আটকে রাস্তা থেকে টেনে নিয়ে যায় তারপর তাকে আটকে রাখে। খবর পেয়ে তার বাবা মজিবুর রহমান সেখানে যান।

 

 

পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ,রফিক মেম্বার ,উপস্থিতিতে গ্রাম্য শালিসের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তার বাবা জসিমকে ২০ জুতার বাড়ি,২০ বার কান ধরে উঠা-বসা করান । এরপর শালিস থেকে বের হয়ে আর বাড়ি ফেরে নি সে। পরে আত্মীয়-স্বজন ও পাড়া-প্রতিবেশী সবখানে খোঁজ করা হয়েছে। কিন্তু তাকে পাওয়া যায় নি।


স্থানীয়রা জানিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই পিরিজপুর গ্রামের এক সহপাঠীর সঙ্গে জসিমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু কয়েকদিন আগে তাদের মান-অভিমান হয়। এরপরই জসিম বুধবার রাতে প্রেমিকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিল।এবিষয়ে গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ধারণা করা হচ্ছে গ্রাম্য শালিসে জুতাপেটার অপমান সহ্য করতে না পেরেই আত্মহত্যা করেছে।

 

তবে জসিমের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এরপরই মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাবে। এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলার পর আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com