রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :

ছাত্রীকে রুমে নিয়ে হাত-পা টিপতে বলে ধরা খেলেন অধ্যক্ষ

ছাত্রীকে রুমে নিয়ে হাত-পা টিপতে বলে ধরা খেলেন অধ্যক্ষ

নেত্রকোণা: নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় মাদ্রাসার এক ছাত্রীকে (১১) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক আবুল খায়ের বেলালীকে (৩২) গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে সোর্পদ করেছে স্থানীয়রা।

আজ শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে কেন্দুয়া পৌর শহরের বাদে আঠারবাড়ী ‘মা হাওয়া (আ.) কওমী মহিলা মাদ্রাসা‘র মোহতামিম আবুল খায়ের বেলালীর রুমে এ ঘটনা ঘটে।স্থানীয় শিক্ষানুরাগীদের সহায়তায় ২০১৫ সালে ওই মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করে অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

জানা গেছে, আজ সকাল ৮টার দিকে ওই ছাত্রীকে রুমে ডেকে নিয়ে শিক্ষক আবুল খায়ের বেলালী হাত-পা টিপে দিতে বলেন। একপর্যায়ে তাকে চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করলে ছাত্রী চিৎকার দেন। এতে পাশের লোকজন এসে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে এবং অভিযুক্ত শিক্ষক বেলালীকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

এদিকে ঘটনাটি জানাজানি হলে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরও একাধিক শিশু ছাত্রী ধর্ষণসহ যৌন হয়রানির অভিযোগ করে।

নির্যাতিত শিশুর বাবা বলেন, ‘আমার শিশু মেয়ে মাদ্রাসার বডিং-এ থেকে লেখাপড়া করত। সকালে মেয়ের ওপর নির্যাতনের খবর পেয়ে মাদ্রাসায় ছুটে আসি। এই লম্পটের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, মাদ্রাসার মোহতামিম আবুল খায়ের বেলালী বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে পৃথক দুটি মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com