মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন

বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এমপিওভুক্তির দাবি

বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ এমপিওভুক্তির দাবি

বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজগুলোকে এমপিওভুক্ত করাসহ ৫ দফা দাবি জানিয়েছেন শিক্ষকরা।
দাবিগুলো হচ্ছে বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজে কর্মরত পর্যায়ক্রমে সব শিক্ষককে দেশে-বিদেশে প্রশিক্ষণের সুযোগ দেয়া, প্রতিটি কলেজে একটি করে ডিজিটাল ল্যাব প্রতিষ্ঠাসহ তথ্যপ্রযুক্তির সব সেবা নিশ্চিত করা, প্রতিটি কলেজের নামে নিষ্কণ্টক জমি বরাদ্দ দেয়া এবং কলেজগুলোর শিক্ষক-কর্মচারীদের আবাসন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা।

 
জাতীয় প্রেস ক্লাবে শুক্রবার অনুষ্ঠিত শিক্ষক সম্মেলনে এসব দাবি তুলে ধরেন বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ শিক্ষক সমিতির নেতারা।

 

খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ টিচার্স ট্রেনিং কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ফাতেমা খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম খান।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম বলেন, মানসম্পন্ন শিক্ষক তৈরিতে বেসরকারি টিটিসি কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু প্রতিষ্ঠার ২৭ বছরেও সরকার কোনো আর্থিক অনুদান দেয়নি।

 

সুশিক্ষিত জাতি গড়তে অবিলম্বে টিটিসিতে জনবল কাঠামো ও এমপিওভুক্ত করার বিকল্প নেই। দাবি আদায়ে আগামী ২০ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মহাসমাবেশ আয়োজনের ঘোষণা দেন তিনি।

 

সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি অধ্যক্ষ আল মুজাহিদ ফকির, সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল হোসেন, অর্থসম্পাদক শাহিদা খাতুন, শিক্ষক নেতা অধ্যক্ষ এমএ মোনায়েম, অধ্যক্ষ আবদুুস সামাদ, অধ্যক্ষ হামিদা আক্তার প্রমুখ।

 

অন্যদিকে প্রেস ক্লাবে বাংলাদেশ সরকারি কলেজ শিক্ষক পরিষদের (বাসকশিপ) নবগঠিত কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি কেএম দেলোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সংগঠনের নেতারা অংশ নেয়।

 

সভায় বক্তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সরকারিকরণের গেজেট হওয়া কলেজগুলোর দ্রুত পদ সৃজনের কাজ শেষ করা জরুরি হয়ে পড়েছে।

 

ইতিমধ্যে এসব প্রতিষ্ঠান থেকে শত শত শিক্ষক সরকারিকরণের সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়ে শূন্য হাতে ভগ্ন হৃদয়ে অবসরে চলে যাচ্ছেন।

 

প্রতিদিন প্রায় ৫ জন শিক্ষক-কর্মচারী অবসরে যাচ্ছেন। কলেজগুলোর শিক্ষক সৃজনের কাজ প্রথমদিকে দ্রুত হলেও বর্তমানে তা ধীরগতিতে চলছে।

 

ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা। ব্যাহত হচ্ছে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ। সংগঠনের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাবউদ্দিন ও ইসমাইল হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন মৃধা, সিনিয়র সহসভাপতি আনিছুর রহমান, শামছুল আলম, টিআইএম কামরুল আলম মিঞা প্রমুখ।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com