বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২:২৩ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীতে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা অনুর্ধ-১৭ জাতীয় ফুটবল টুর্নামেন্ট খেলার উদ্বোধন রাজশাহী রেঞ্জের মাসিক ‘অপরাধ পর্যালোচনা সভা’ অনুষ্ঠিত ইটভাটা ও কলকারখানার দূষিত কালোধোঁয়া পরিস্কারের যন্ত্র আবিস্কার করলেন রুবেল রাজশাহীতে স্বামীর নির্যাতনে ৩মাসের অন্তঃসত্বা গৃহবধূর আত্মহত্যা ষড়যন্ত্র রুখতে ‘অন্যায়ের বিরুদ্ধে এবং উন্নয়নের পক্ষে জাহাঙ্গীরনগর’ ব্যানারে মানববন্ধন বাগমারায় পরীক্ষায় নকলের দায়ে ১১ পরীক্ষার্থী বহিস্কার বাগমারায় আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে সরকারী গাছ কাটার অভিযোগ পুঠিয়ায় ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টায় শিক্ষক গ্রেফতার বাংলাদেশ নির্ভরযোগ্য অংশীদার এডিবি ফাহাদ হত্যা মামলায় সাদাত ৫ দিনের রিমান্ডে

অর্থনীতিতে বাড়ছে আবাসন খাতের অবদান

অর্থনীতিতে বাড়ছে আবাসন খাতের অবদান

নিউজ ডেস্ক: দেশে সধারণ মানুষের আয়ের ৫০ ভাগ যাচ্ছে বাড়ি ভাড়া দিতে। বাসার আকার যত বড়ো ভাড়া তুলনামূলক তত কম। এছাড়া ছোটো বাসার ভাড়া গুনতে হচ্ছে বেশি। সেইসঙ্গে বস্তিতে যারা থাকছেন তাদের আবাসিক সুযোগ-সুবিধা কম থাকলেও ভাড়া দিতে হচ্ছে তুলনামূলক বেশি। সবমিলিয়ে আয়ের ৫০ ভাগ চলে যাচ্ছে বাড়ি ভাড়া দিতেই। সারাদেশে নিজের বাড়ি আছে ৩ কোটি ২৪ লাখ ৬৯ হাজার পরিবারের। ভাড়া বাড়িতে থাকেন ৪৬ লাখ ২০ হাজার। ভাড়া ছাড়াই বাড়িতে বসবাস করেন সাড়ে ৬ লাখ পরিবার। সম্প্রতি এমন তথ্যই উঠে এসেছে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) এক জরিপে।

জরিপ থেকে তৈরি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশের মোট বাড়ির মধ্যে ৮৫ দশমিক ৮২ শতাংশ পরিবারের নিজের বাড়ি আছে। ভাড়া বাড়িতে থাকেন ১২ দশমিক ২১ শতাংশ পরিবার ও ভাড়া ছাড়াই বাড়িতে থাকেন ১ দশমিক ৭১ শতাংশ। এছাড়া অন্যান্যভাবে বাড়িতে থাকেন এক লাখ পরিবার। সবমিলিয়ে মোট দেশজ উত্পাদনে (জিডিপি) আবাসন খাতের অবদান এখন ৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

প্রতিবেদনে দেখা যায়, অনাবাসিক ভবনে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৪৮ হাজার ৮৫৫ কোটি টাকা ভাড়া বাবদ আয় হয়েছে যা পরের বছর দাঁড়ায় ৫৪ হাজার ৩৭৯ কোটি টাকা। সংস্কার ব্যয় বাদে এক হাতে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ৪৪ হাজার ৯৪৮ কোটি টাকা মূল্য সংযোজন হয়েছে। ১১ দশমিক ২০ শতাংশ বেড়ে পরের অর্থবছরে এর আকার দাঁড়ায় ৪৯ হাজার ৯৮১ কোটি টাকায়।

আবাসন খাতে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ভাড়া বাবদ আয় ছিল ৮১ হাজার ২৮৬ কোটি টাকা। যা পরের ২০১৬-১৭ অর্থবছর বেড়ে দাঁড়ায় ৮৯ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা। এক বছরে মূল্য সংযোজন ৭০ হাজার ২০৮ কোটি টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৫ হাজার ৯৭২ কোটি টাকা। এই হিসেবে বাজার মূল্য প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৮ দশমিক ২১ শতাংশ।

এই খাতে নিয়োজিত শ্রম পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে বলা হয়েছে, আবাসন খাতে ৫ লাখ ৩৯ হাজার ৪১৫ জন কাজে নিয়োজিত আছেন। শ্রমিকদের ৩১৩ কোটি ৯০ লাখ টাকা বেতন হিসেবে ও ৫৩৪ কোটি টাকা অন্যান্য পাওনা বাবদ পরিশোধ করা হয়েছে। দেশে মোট ৫৩ লাখ ২০ হাজার বাণিজ্যিক ভবন রয়েছে, এসব ভবনে ৩১ দশমিক ২১ ভাগ মালিক নিজেই ব্যবহার করে থাকেন। পজিশন বিক্রি ২ দশমিক ১২ শতাংশ ভবনে। আর ভাড়া দেওয়া হয়ে থাকে ৬৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ ভবন।

আবাসিক, বাণিজ্যিক ও নির্মাণ মিলিয়ে ৩ উপখাতে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে এক লাখ ৪১ হাজার ৫৭৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা মূল্য সংযোজন হয়েছে। আগের অর্থবছরে এর পরিমাণ ছিল এক লাখ ২৯ হাজার ৩১১ কোটি ১০ লাখ টাকা। এক বছরে এ খাতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৯ দশমিক ৪৯ শতাংশ।


©2014 - 2019. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com