শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯, ০৮:৪১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট টিকবে না: কাদের এসএসসি পরীক্ষা ২০১৯: প্রশ্নফাঁসকারী চক্রকে ধরতে মাঠে থাকছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গণতন্ত্রের প্রতি অনীহা ও পরনির্ভরশীলতার কারণে বিএনপি জোটের অধঃপতন লিঙ্গবৈষম্য কমিয়েছে, নারীর উন্নয়নে আরও নিশ্চিত হতে বদ্ধপরিকর সরকার সরকারের লক্ষ্য উন্নত রাষ্ট্র গড়া, সন্ত্রাসবাদ নিয়ন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্র-ভারতের চেয়েও এগিয়ে প্রশ্নফাঁস রোধে ফেসবুকে ছদ্মবেশে ঘুরছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী রাণীনগরে উপজেলা নির্বাচনে আ’লীগে নতুন মুখের হিড়িক ॥ নিরব ভ’মিকায় বিএনপি খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে প্রতিটি জেলায় টিম গঠন করতে হবে- খাদ্যমন্ত্রী সাবেক মহিলা আ.লীগ সভাপতি আশরাফুন্নেছা আর নেই রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদের কাপ্তাইয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন

রংপুরে বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামীর কারাগারে মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক : রংপুরের বিশেষ জজ আদালতের (পিপি) অ্যাডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিক ওরফে বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম মারা গেছেন।

শনিবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কামরুল ইসলাম মারা যান।

কারাগারের জেলার আমজাদ হোসেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বাবুসোনা হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলাম বেশ কিছুদিন থেকে ডায়াবেটিক ও হৃদরোগের সমস্যায় ভুগছিলেন। ভোরে তিনি গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমরা ডেড সার্টিফিকেট পেয়েছি। ময়নাতদন্ত ও অন্যান্য আনুষ্ঠানিকতা শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

রমেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. অজয় রায় বলেন, হাসপাতালে আনার কিছুক্ষন পরেই কামরুল মারা যান। কি কারণে মারা গেছেন তা ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে জানা যাবে।

উল্লেখ্য, বাবুসোনা হত্যা মামলাটি রংপুর জেলা জজ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ চলছিলো। মামলার অপর আসামি বাবুসোনার স্ত্রী কামরুলের প্রেমিকা স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপা জেল হাজতে রয়েছেন।

চলতি বছরের ২৯ মার্চ রাতে বাবুসোনাকে ১০টি ঘুমের ওষুধ খাইয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এরপর তার মরদেহ তাজহাট মোল্লাপাড়ায় প্রেমিক কামরুলের ভাইয়ের নির্মাণাধীন বাড়ির ঘরের মেঝেতে পুঁতে রাখা হয়।

৩ এপ্রিল রাতে বাবুসোনার স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার ওরফে দীপা ভৌমিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র্যা ব আটক করে। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেন এবং মরদেহের অবস্থান সম্পর্কে তাদের জানান। সেই সূত্র ধরে ওইদিন রাতে মোল্লাপাড়ার একটি বাড়ির মেঝে খুঁড়ে নিহত বাবুসোনার গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com