মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৫:১৭ অপরাহ্ন

রাজশাহী হবে দেশের সেরা শহর : বাদশা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮
রাজশাহী হবে দেশের সেরা শহর : বাদশা

নিজস্ব প্রতিবেদক : নির্বাচনি প্রচারণায় নেমে রাজশাহী সদর আসনে ১৪ দলের প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশা বলেছেন, ১০ বছর সংসদ সদস্য থাকাকালে তিনি রাজশাহী মহানগরীতে ২০ হাজার কোটিরও বেশি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছেন। আরেকবার সুযোগ পেলে তিনি রাজশাহীকে দেশের সেরা শহর হিসেবে গড়ে তুলবেন।

 

মঙ্গলবার বিকালে নগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ডে নৌকা প্রতিকের প্রচারণায় গিয়ে এ কথা বলেন তিনি। উন্নয়নের এই ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা প্রতিকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, মহাজোট সরকার থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। আর বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এলে উন্নয়নের টাকায় সৃষ্টি হয় জঙ্গিবাদ। তাই দেশের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আবারও রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আনতে হবে।

 

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, সরকার রাজশাহীতে হাইটেক পার্ক নির্মাণ করছে। এখানে প্রত্যক্ষভাবে ১৪ হাজার তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হবে। এর মাধ্যমে রাজশাহীর অর্থনীতি আরও চাঙা হবে। তার সরকার শিক্ষা নগরী রাজশাহীতে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ও দিয়েছে। তিনি নিজের প্রচেষ্টায় নগরীর বসড়ি এলাকায় ২৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে বাঁধ তৈরি করেছেন। এখন সে এলাকায় আর নদীভাঙন হবে না। সে এলাকার জমির দাম বেড়েছে। লোকজন নিরাপদে বসবাস করছেন।

 

তিনি বলেন, নগরীতে বিশুদ্ধ পানির সরবরাহে তিনি ৪ হাজার ৬২ কোটি টাকার একটি উন্নয়ন প্রকল্প পাস করিয়ে এনেছেন। রাজশাহী ওয়াসার এই প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে নগরীতে কোনো পানির সমস্যা থাকবে না। রাজশাহীতে এমন বড় বড় উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ করতে হলে বর্তমান সরকারকেই আবার ক্ষমতায় আনতে হবে। তা না হলে উন্নয়নে ভাটা পড়বে। রাজশাহী পিছিয়ে পড়বে।

 

বাদশা বলেন, আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর ২৫৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অবকাঠামোগত উন্নয়ন করেছি। ৭২টির কাজ চলমান। ৫৩০টি মসজিদের উন্নয়ন করেছি। ৩৬৪টি মসজিদের উন্নয়ন করেছি। বিগত ১০ বছরে রাজশাহীতে যত উন্নয়ন কাজ হয়েছে তা অতীতে কখনোই হয়নি। তিনি সব সময় রাজশাহীর মানুষের জন্য রাজনীতি করেন। তাই এতো কাজ হয়েছে। এবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে পারলে তিনি আরও বেশি কাজ করবেন।

 

দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এ দিন ফজলে হোসেন বাদশা নগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ডের রানীদিঘী থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। পরে তিনি হড়গ্রাম নতুনপাড়া গোরস্থানে নগরপাড়া মহল্লার বাসিন্দা আশরাফ আলীর জানাযা নামাজে অংশ নেন। এরপর বাদশা হড়গ্রাম নতুনপাড়া, বিদিরপাড়া, নগরপাড়াসহ আশপাশের মহল্লাগুলোতে নৌকা প্রতিকের প্রচার চালান। এ সময় তিনি বাড়ি বাড়ি গিয়ে নৌকা প্রতিকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার স্বার্থে মহল্লাবাসীও ফজলে হোসেন বাদশাকে নির্বাচিত করার কথা বলেন।

 

এর আগে সকালে ফজলে হোসেন বাদশা নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাশিয়াডাঙ্গা মোড় থেকে দিনের গণসংযোগ শুরু করেন। দুপুর পর্যন্ত তিনি নগরীর রায়পাড়া, কাঠালবাড়িয়াসহ আশপাশের পাড়া-মহল্লাগুলোতে নৌকা প্রতিকের প্রচারণা চালান। সবার হাতে হাতে তুলে দেন নৌকা প্রতিকের পোস্টার। শুভেচ্ছা বিনিময় করেন সাধারণ ব্যবসায়ী ও মহল্লাবাসীর সঙ্গে।

 

এ সময় তার সঙ্গে মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শফিকুর রহমান বাদশা, মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, রাজপাড়া থানা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক মো. আরিফ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রউফ, সহ-সভাপতি তাহাসেন আলী, সাধারণ সম্পাদক ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র-২ রজব আলী, নগর আওয়ামী লীগের সদস্য খায়রুল বাশার শাহীন, দিগন্ত প্রসারি সংঘের সাধারণ সম্পাদক নূরুল হক উপস্থিত ছিলেন।

 

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নগর জাতীয় পার্টির সভাপতি খন্দকার মোশাররফ হোসেন ডালিম, রাজপাড়া থানা ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদক আবদুল মতিন, ১ নম্বর ওয়ার্ড ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি আদিরুল জামান আদিল, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল আজিজ, জাসদের জেলা সভাপতি মজিবুল হক বকু, নগর সভাপতি প্রদীপ মৃধা, বাংলাদেশ জাসদের নগর সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শফিক, নগর যুবমৈত্রীর সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির, সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালেক বকুল, মহানগর জাতীয় শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোজাহার আলী, ওয়ার্ডের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফাসহ ১৪ দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী।

 

আর বিকালে নগরীর ২ নম্বর ওয়ার্ডে বাদশার গণসংযোগে তার সঙ্গে ছিলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সেলিম রেজা, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম ফটিক, নগর ওয়ার্কার্স পার্টির সদস্য মনির উদ্দিন পান্না, ওয়ার্ড ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ইসহাক আলী মণ্ডল, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল, নগর যুবমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক আবদুল খালেক বকুলসহ ১৪ দলের আরও অনেক নেতাকর্মী। গণসংযোগকালে তারা ‘নৌকা’, নৌকা শ্লোগান তোলেন। শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে চারপাশ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
  12345
2728     
       
      1
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930     
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
©2014 - 2020. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Theme Developed BY ThemesBazar.Com