বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:০৪ অপরাহ্ন

চট্রগ্রামে জন্ম নেয়া মাথা জোড়া লাগানো শিশুকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি

 

নিজস্ব প্রতিবেদক:দেড়বছর আগে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির কাঞ্চনপুর গ্রামের দিনমজুর ইউনুছ (২১) পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন হুসনে আরা বেগম (১৯) নামে এক নারীকে।

চলিত বছরের ২১ আগস্টেই তাদের দাম্পত্য জীবনে সুস্থ স্বাভাবিকভাবে নয়, শারীরিক প্রতিবন্ধকতা নিয়েই চট্টগ্রামের কেয়ার পয়েন্ট হাসপাতালে সিজারের মাধ্যমে জন্ম নেয় জোড়া লাগানো যমজ শিশু দু’টি। একসপ্তাহ ওই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রেখে পরে শিশু দু’টিকে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়।

রোববার (৭ অক্টোবর) সকাল ১০টায় ‘মানবকল্যাণে এসো কিছু করি’ নামের চট্টগ্রামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার পক্ষ থেকে চিকিৎসার জন্য জোড়া লাগানো শিশু দু’টিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের আনা হয়।

হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসকরা জোড়া শিশু দু’টিকে প্রাথমিকভাবে দেখে শিশু সার্জারি বিভাগের ২০৫ নম্বর ওয়ার্ডের ৮ নম্বর বেডে ভর্তি করান।

শিশু সার্জারি বিভাগের আবাসিক সার্জন ডা. সৈয়দ আব্দুল আদিল বলেন, সকালেই শিশু দু’টিকে ভর্তি করানো হয়েছে। শিশু দু’টির হাত ও মুখমণ্ডল আলাদা আলাদা হলেও জোড়া লাগানো পেট আর পা। তাদের আলাদা আলাদা হার্ট (হৃদপিন্ড) থাকলেও পায়ুপথ ও প্রসাবের রাস্তা একটি।

তাদের শারীরিক সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হবে। তারপরই মূলত ভেতরের অবস্থা বুঝা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে দেখে শিশু দু’টিকে আলাদা করাটা বেশ কঠিন হবে বলে মনে হচ্ছে। তবুও আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে তাদের আলাদা করার।

শিশু দু’টির বাবা দিনমজুর ও মা গৃহিনী। এটিই তাদের প্রথম সন্তান। দিনমজুর ইউনুছ শিশু দু’টিকে নিয়ে বিপাকে পড়েছেন। তার পক্ষে শিশু দু’টির খরচ বহন করা সম্ভব হবে না হচ্ছে না। এ ব্যাপারে ইউনুচ ও তার পরিবারের অন্যান্যরা মানুষের কাছে সহযোগিতা কামনা করছেন।

চিকিৎসা বিজ্ঞানে, এ ধরনের শিশুকে কনজয়েন্ট টুইন কিংবা সিয়ামিজ টুইন বলে।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com