শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ১২:৫৮ অপরাহ্ন

বাগমারায় নৌকার জমজমাট নির্বাচনী প্রচারণা

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৮
বাগমারায় নৌকার জমজমাট নির্বাচনী প্রচারণা

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাগমারা-৪ আসনে উৎসব মূখর পরিবেশে চলছে নির্বাচনি প্রচার-প্রচারনা। প্রার্থীরা হাঁড় কাঁপানো কনকনে শীত উপেক্ষা করে প্রত্যান্ত গ্রাম অঞ্চলে বাড়ী-বাড়ী গিয়ে মাঝরাত অব্দি গনসংযোগ করছেন। নির্বাচনের বাঁকি আর মাত্র পাঁচ দিন। যতই দিন যাচ্ছে ততই বাড়ছে নির্বাচনি উত্তাপ। মাঠে-ঘাটে, চায়ের দোকানে পাড়া-গ্রামে চলছে নির্বাচনি মুখরোচক আলোচনা। বাগমারার সবখানেই নির্বাচনি উৎসব বিরাজ করছে।

 
নির্বাচন কমিশনসূত্রে জানাগেছে,বাগমারা উপজেলা নিয়ে গঠিত রাজশাহী-৪ আসন।এ আসনে ২টি পৌরসভা ও ১৬টি ইউনিয়ন রয়েছে। মোট ভোটার সংখ্যা ২লাখ ৭৮ হাজার ৮জন। এরমধ্যে মহিলা ভোটার সংখ্যা ১লাখ ৩৯হাজার ২৯৭ জন এবং পুরুষ ভোটার ১লাখ ৩৮হাজার ৭১১জন। এর মাঝে নতুন ভোটার যোগ হয়েছে ২৪ হাজার ৪৬০জন।ভোটারদের মূল আলোচনায় রয়েছেন নৌকার প্রার্থী বর্তমান এমপি প্রকৌশলী এনামুল হক ও ধানের শীষের সাবেক এমপি আবু হেনা। তবে ভোটাররা বিভিন্ন কারণে এ আসনে দুই বারের সফল এমপি এনামুল হককেই এগিয়ে রাখছেন।

 

পক্ষান্তরে বিএনপির সাবেক এমপি আবু হেনা দীর্ঘ ১৪ বছর এলাকায় জনবিচ্ছিন্ন ছিলেন, ফলে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে গিয়ে নানা রকম প্রতিবন্ধকতার স্বীকার হচ্ছেন। এলাকার সাধারণ ভোটাররা তার বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ তুলেছেন,তারা বলছেন,আপনি এমপি থাকাকালে বাগমারা বাসির ভাগ্যর উন্নয়ন হয়নি।বাগমারা সন্ত্রাসের জনপদে পরিনত হয়েছিল। তাদের প্রশ্ন এতদিন কোথায় ছিলেন? গত ২০ ডিসেম্বর আবু হেনা উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউপিতে নির্বাচনি প্রচারণায় গেলে স্থানীয় মহিলা ভোটাররা তাঁর বিরুদ্ধে ঝাড়– মিছিল বের করে।প্রতিবন্ধকতার মুখে তিনি পিছু হটতে বাধ্য হন।এরপর পাশ্ববর্তী হামিরকুৎসা বাজারে গনসংযোগে গেলে সেখানেও বাধার সম্মুখীন হন।

 

একপর্যায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়।সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ মামলা দায়ের করেছেন।অন্যদিকে মহাজোট প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক তাঁর নির্বাচনি এলাকায় নিয়মিত পদচারনা থাকায় এবং তাঁর বিগত দিনের কর্মকান্ড জনবান্ধব হওয়ায় দলমত নির্বিশেষে সবাইকে নৌকায় তুলতে সমর্থ হয়েছেন।

 

তিনি তাঁর দশ বছরের কর্মকান্ড সম্পর্কে বলেন,আমি বাগমারায় দুইবার এমপি হিসেবে কাজ করার সুযোগ পেয়েছি। বিগত দশ বছরে বাগমারার রাস্তা-ঘাট,বিদ্যুতায়ন,শিক্ষা,স্বাস্থ্য,বেকার সমস্যা দুরীকরনসহ আইন শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছি।বাগমারা ছিল বাংলা ভাই তথা জেএমবি-সর্বহারার রক্তাক্ত জনপদে আজ শান্তি প্রতিষ্ঠা করতে পেরেছি।তাই যেখানেই যাচ্ছি জনতার উপচে পড়া ভিড় লক্ষ করছি।তাই ৩০ শে ডিসেম্বর জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী।

 
তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী আবু হেনা সম্পর্কে বলেন,দীর্ঘ একযুগ পর তাঁর এলাকায় আগমন ঘটায় এলাকার মানুষ তাঁকে ভুলে গেছে।বিস্ময়কর বিষয় হলো এবারে এ আসনে প্রায় ২৪ হাজার নতুন ভোটার যোগ হয়েছে,যারা কিনা ইতিপূর্বে তাঁর চেহারাই দেখেনি। তিনি অভিযোগ করে বলেন, ২০০৪ সালে তিনি এমপি থাকাকালীন বাগমারায় বাংলা ভাইয়ের আগমন ঘটে। সে সময় আওয়ামী লীগের অসংখ্য নেতাকর্মি সহ সাধারণ মানুষ হত্যা-গুম, নির্যাতনের শিকার হন। তৎকালীন এমপি ছিলেন এই আবু হেনা।

 

তিনি এসব কর্মকান্ডে একেবারে নির্লিপ্ত ছিলেন। বাগমারাবাসী সেদিনের কথা ভুলেনি। ৩০ শে ডিসেম্বর এলাকার ভোটাররা তার সমুচিত জবাব দেবে। মহাজোট নেতাদের অভিযোগ প্রায় একযুগ পর ভোট চাইতে এসেছেন তিনি। জনগণ তাঁকে গ্রহন করবে না।উল্টো ভোটাররা তাঁকে প্রশ্ন করছেন এত দিন কোথায় ছিলেন ?

 
গোয়ালকান্দি ইউপির বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সালাম এনামুল সম্পর্কে বলেন, তার নেতৃত্বে বাগমারা আওয়ামী লীগ এখন সুসংগঠিত সবাই একত্রিত হয়ে নৌকার পক্ষে নৌকার পক্ষে কাজ করছে, ফলে বাগমারায় নৌকার জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

 
নৌকার প্রার্থী এনামুল হক সম্পর্কে চেউখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বকুল খোরাদী বলেন, তিনি এলাকার গরীব দুঃখি মানুষের বন্ধু সব সময় তিনি নিপিড়িত নির্যাতিত মানুষের পাশে থাকেন। তাই আমরা এমন নেতার পাশে থাকার অংগিকারবদ্ধ হয়েছি।

 
অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী আবু হেনা সাংবাদিকদের অভিযোগ করে বলেন, প্রচারনায় বিভিন্ন স্থানে অনাকাঙ্খিত বাধার সম্মুখিন হতে হচ্ছে এবং স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন বৈরী আচরন করছে বলে জানান। তিনি আরো বলেন, লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড থাকলে ৩০শে ডিসেম্বর ধানের শীষেরই জয় হবে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Archives

SatSunMonTueWedThuFri
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031    
       
  12345
2728     
       
      1
       
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
2930     
       
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031   
       
©2014 - 2020. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Theme Developed BY ThemesBazar.Com