মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বেনাপোল সীমান্তে নারী-পুরুষ ও শিশুসহ আটক -১৪ সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা পেলেন শেখ সাইফুল ইসলাম কবির রাজশাহীতে রেলের টিকিট কালোবাজারির দায়ে আটক-৪:ভ্রাম্যমান আদালতে ৭ দিনের কারাদন্ড রাজশাহী মহানগরীতে ফেন্সিডিলসহ র‍্যাবের হাতে যুবক আটক সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী মহানগরীর একটি নারী আসন বরাদ্দের দাবিতে মানববন্ধন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে অভাব অনটন দুরে সরে গেছে – হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন নামঞ্জুর:কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ওলামা লীগের সভাপতি গ্রেফতার স্বাধীনতার ৪৮ বছর পেরিয়ে গেলেও কেউ নেয়নি শিবগঞ্জের বিধবা দেলবাহারের খোঁজ পাবনার সাঁথিয়ায় ভাইকে বাঁচাতে এসে এএসআইয়ের পিস্তল কেড়ে নিলো ভাই

জমাট বাঁধা সার নিয়ে গাইবান্ধার ডিলাররা বিপাকেসার ক্রয়ে কৃষকের অনীহা

জমাট বাঁধা সার নিয়ে গাইবান্ধার ডিলাররা বিপাকেসার ক্রয়ে কৃষকের অনীহা
জমাট বাঁধা সার নিয়ে গাইবান্ধার ডিলাররা বিপাকেসার ক্রয়ে কৃষকের অনীহা

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ বাফার গুদামের জমাট বাঁধা ইউরিয়া সার নিয়ে গাইবান্ধার ডিলাররা বিপাকে পড়েছেন। কৃষকরা এই জমাট বাঁধা সার ক্রয়ে অনীহা প্রকাশ করছে। এই জমাট বাঁধা সার নিয়ে সার ডিলাররা বাফার কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ করেও সুফল মেলেনি। এর প্রতিকারের দাবিতে বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশন, জেলা শাখার উদ্যোগে বৃহস্পতিবার গাইবান্ধা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে। অন্যথায় সার উত্তোলন বন্ধ করতে বাধ্য হবে ডিলাররা।

 

 

সংবাদ সম্মেলনে অ্যাসোসিয়েশনের জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুদেব কুমার চৌধুরী লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, গাইবান্ধা জেলার বাফার গুদামে বিপুল পরিমাণ ইউরিয়া সার দীর্ঘদিন মজুদ রয়েছে। জেলার কৃষকরা জমাট বাঁধা ইউরিয়া ব্যবহারে অভ্যস্ত নয়। কৃষকদের অনীহার কারণে তারা জমাট বাঁধা সার বিক্রয় করতে পারছে না। এ নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হলে বিসিআইসি এর পরিচালক (অর্থ) মো. হাইউল কাইউম গাইবান্ধার বাফার গুদাম পরিদর্শন করে ডিলারদের সাথে মতবিনিময় করেন। তিনি ডিলারদের জমাট বাঁধা সার সরবারহ নেয়ার জন্য অনুরোধ এবং ভবিষ্যতে জমাট বাঁধা সার আর সরবরাহ দেয়া হবে না বলে আশ্বস্ত করেন। সেই জমাট বাঁধা সার মেশিনে ভেঙে ডিলারদের সরবরাহ দেয়া হয়।

 

কিন্তু কৃষকরা এই সার ক্রয় না করায় ডিলারদের গুদামে এখনও অবিক্রিত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। ফলে তাদের ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপুল পরিমাণ আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হতে হচ্ছে। এমতাবস্থায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর গাইবান্ধা জেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির সভায় বাফার সার গোডাউনে কৃষক পর্যায়ে বিক্রয়ের অনুপোযোগী জমাট বাঁধা ইউরিয়া সার নতুন করে বাইরে থেকে সরবরাহ না নেয়ার জন্য গাইবান্ধার সারের বাফার কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানানো হয়। কিন্তু ডিলারদের সমস্যা নিরসনে একাধিকবার প্রদত্ত অভিযোগের কোন তোয়াক্কা না করেই গাইবান্ধার বাফার গুদামে জমাট বাঁধা ছেঁড়াফাটা ও কম ওজনের সারের বস্তা মজুদ অব্যাহত রাখা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে ডিলাররা জানান, এ অবস্থা চলতে থাকলে তাদের পক্ষে কোনক্রমেই জমাট বাঁধা সার উত্তোলন সম্ভব হবে না।

 
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার অ্যাসোসিয়েশন জেলা সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ লেবন, আব্দুস সবুর সরকার, একে মজিদুল আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহফুজার রহমান, সদস্য গাজী শরিফুল ইসলাম, সৈয়দ কামরুল ইসলাম ইমরান, সাবেক জেলা সভাপতি একেএম জিল্লুর রহমান রাজু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম রিপন প্রমুখ।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

© All rights reserved © 2018 rajshahinews24.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com