বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৪ পূর্বাহ্ন

‘নানা পাটেকর আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস করেছে, আমি চুপ থাকব না’

‘নানা পাটেকর আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস করেছে, আমি চুপ থাকব না’

বিনোদন ডেস্ক : এই মুহূর্তে বলিউডে বিতর্কের ঝড় তুলেছেন অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্ত। অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে তিনি যৌন হেনস্থার অভিযোগে ফের একবার সরব হয়ে, ক্রমেই বিস্ফোরক হয়ে উঠছেন অভিনেত্রী।

কিছুদিন আগেই নানা পাটেকর জানান , তনুশ্রীর অভিযোগ ঘিরে অভিনেত্রীর কাছে আইনি চিঠি পাঠাচ্ছেন তিনি । এরপর ফের সরব হন তনুশ্রী।

সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে তনুশ্রী জানিয়েছেন, ‘নানা পাটেকারের জন্য় আমার পুরো কেরিয়ার শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি ছেড়েছি তার নিপীড়নের কারণে, আমি কিছুতেই চুপ করে থাকব না। আমি কোনও আইনি নোটিস তাঁর কাছ থেকে পাইনি। আমি অপেক্ষা করে রয়েছি এটার জন্য।’

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালের ছবি ‘হর্ন ওকে প্লিজ’-এর শ্যুটিংয়ের সময় তনুশ্রী দত্তর সঙ্গে অভব্য আচরণের অভিযোগ ওঠে নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে। তনুশ্রী দাবি করেন, ছবির শ্যুটিং এর সময় তাঁকে যৌন হেনস্থা করেন নানা পাটেকর। এই বিষয়টি নিয়ে যখন তিনি সরব হন, তখন গোটা বলিউড তাঁর বিরুদ্ধে চলে যায়। পরে তাঁকে বহুবার কাজের সুযোগও হারাতে হয় সেই ঘটনার জন্য।

এদিকে তনুশ্রীর পক্ষে সাক্ষী দিয়েছেন এক সাংবাদিক। জেনিস সেকিউরিয়া নামের এক সাংবাদিক বলছেন, সেই দিন শ্যুটিং এর সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন তিনি। আর যখন শ্যুটিং এর খবর করতে তিনি পৌঁছন ‘হর্ন ওকে প্লিজ’-এর শ্যুটিং এ, তখন দেখেন বন্ধ রয়েছে শ্যুটিং। জানতে পারেন, যৌন হেনস্থা নিয়ে নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে সেট-এ মুখ খুলেছেন তনুশ্রী। প্রযোজকরা সাংবাদিককে জানান, ছবির নায়িকা ‘সহযোগিতা’ করছেন না বলে বন্ধ রয়েছে শ্যুটিং। গোটা ঘটনাটি জেনিস পোস্ট করেন ফেসবুকে।সূত্র:কালের কণ্ঠ।

এখানেই শেষ নয়। সেই রাতে তনুশ্রীর বাবা মা তাঁকে নিতে এলে,তাঁদের গাড়ির ওপর হামলাও হয়। সাংবাদিক জেনিসের বয়ান অনুযায়ী সেই সময়ে তনুশ্রীর সঙ্গে কথা বলতে যান ওই সাংবাদিক। গোটা ঘটনায় তনুশ্রী যে কান্নায় ভেঙে পড়েন তা জানাতে ভোলেননি জেনিস।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com