মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

শরীয়তপুরে মা ইলিশ বহনের দায়ে তিন পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত

শরীয়তপুর প্রতিবেদক :নিষেধাজ্ঞা অভিযান চলাকালীন সময় মা ইলিশ বহনের দায়ে শরীয়তপুরে তিন পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বুধবার (১৬ অক্টোবর) রাত পৌনে ১২টার দিকে পুলিশ লাইন্সের অফিসে বসে পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন এ বরখাস্তের আদেশে স্বাক্ষর করেন বলে জানাগেছে। বরখাস্ত আদেশ প্রাপ্ত পুলিশ সদস্যরা হলেন শরীয়তপুর পুলিশ লাইন্সের মোটরযান বিভাগে দায়িত্বরত এস.আই মন্টু মিয়া, কনেস্টবল হৃদয় ও সনজিত।
জানাযায়, শরীয়তপুরের প্রশাসনের পাশাপাশি শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু’র নির্দেশে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ ও সাধারণ মানুষ মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে অংশগ্রহণ করে। অভিযান চলাকালীন সময় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শরীয়তপুরের বিভিন্ন সড়ক দিয়ে মা ইলিশ বহনের মহোৎসব চলছে শুনে দলীয় কিছু নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেয়। তারই ধারাবাহিতকায় বুধবার রাত ১১টার পর থেকে পুলিশ লাইন্স সংলগ্ন পানি উন্নয়ন বোর্ড সড়ক দিয়ে কয়েকজন পুলিশ সদস্য মা ইলিশ বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল এমন খবর পায় তারা। তখন দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের হাতে ধরা পড়ে ওই পুলিশ সদস্যরা। খবর পেয়ে জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থলে যায়। তখন পুলিশ লাইন্সের আবাসিক পুলিশ পরিদর্শক অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের জিম্মায় গ্রহণ করে পুলিশ লাইন্সে নিয়ে যায়। পুলিশ লাইন্সে বসেই অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বরখাস্ত আদেশে স্বাক্ষর করেন পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন। সেখান থেকে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহাবুর রহমান শেখ মা ইলিশ জব্দ করে বিভিন্ন এতিম খানায় প্রদান করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল মামুন শিকদার, পুলিশ সুপার কার্যালয়ের ডিআইও-১ আজাহারুল ইসলাম ও পালং থানার ওসি মো. আসলাম উদ্দিন প্রমূখ। পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতেই বরখাস্ত হওয়া এস.আই মন্টু মিয়ার কাছ থেকে টিআই জামাল মীর’কে মোটরযান শাখার দায়িত্ব বুঝে নিতে নির্দেশ করেন পুলিশ সুপার।
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন বলেন, আমি পুলিশ সদস্যদের দায়িত্ববান হতে অনেক বুঝিয়েছি। মা ইলিশ রক্ষা করা জাতীয় ইস্যু। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সকল নেতাকর্মীগণ ও সাধারণ মানুষ সচেতন হয়েছে। কিন্তু পুলিশ সদস্যরা আমার কথা বুঝতে পারেনি। যারা নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেছে তাদের পুলিশে চাকুরি করার যোগ্যতা নাই। আজ যারা ইলিশ বহন করেছে তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা হয়েছে। তারা যেন ৬০ কার্য দিবসের মধ্যে বাড়ি চলে যেতে পারে সেই ব্যবস্থাও করা হবে।
এদিকে পুলিশ সদস্য বরখাস্ত হওয়ায় শরীয়তপুরের সাধারন মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

©2014 - 2019. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com