মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন

সাপাহারে শয়ন ঘর থেকে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার! স্বামী পলাতক

সাপাহারে শয়ন ঘর থেকে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার! স্বামী পলাতক

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহারে ভাড়া বাসার শয়ন ঘর থেকে জোসনা খাতুন (১৬) নামের গৃহবধুর রহস্যজনক লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে উপজেলার মাষ্টার পাড়ার জৈনক মোতাহার হোসেনের বাড়ী থেকে পুলিশ গৃহবধুর লাশটি উদ্ধার করে। এ ঘটনার পর থেকেই গৃহবধুর স্বামী ফারুক হোসেন (২৫) পলাতক রয়েছে।
জানা গেছে, জয়পুরহাট জেলার দোগাছি গ্রামের ফারুক হোসেন নামের যুবক বেশ কয়েক বছর ধরে সাপাহার উপজেলা সদরে বিভিন্ন বাসায় ভাড়া থেকে কখনও চারা গাছ কখনও ফুলের চারা সহ বিভিন্ন ব্যাবসা করে আসছেন।

 

 

অনুমান দেড় বছর পূর্বে সে তার গ্রামের বাসায় স্ত্রী পুত্র রেখে সাপাহার উপজেলা সদরের লালমাঠিয়া পাড়ায় জৈনক ফারুক হোসেন এর অপ্রাপ্ত বয়স্কা মেয়ে জোসনা খাতুন (১৬) কে প্রেমের মায়া জালে ফেলে বিয়ে করেন। এরপর সে বিভিন্ন বাসায় ভাড়া থাকা অবস্থায় মাস দু’য়েক পূর্বে সে মাস্টার পাড়ার ওই বাসায় নতুন ভাড়াটিয়া হিসেবে ওঠেন।এলাকাবাসী জানান, ভাড়ার প্রথম দিন থেকেই ওই লোক তার স্ত্রী জোসনাকে বাসার মধ্যে রেখে বাহিরের দরজায় তালা বন্ধ করে রাখতেন। দুই মাসের মধ্যে এক দিনও তার স্ত্রী ওই বাসা থেকে বের হয়নি।

 

ঘটনার দিন রাতে ভাড়াটিয়া ফারুক অজ্ঞাত স্থান থেকে বাসার মালিক মোতাহার হোসেনকে ফোনে জানিয়ে দেয় যে, তার বাসার ঘরের মধ্যে তার স্ত্রী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আতœহত্যা করেছে। সংবাদ পেয়ে বাসার মালিক পুলিশকে সাথে নিয়ে ওই বাসায় গিয়ে বাসার দরজার তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে গলায় ওড়না পেচানো অবস্থায় ঘরের মেঝেতে মেয়েটির লাশ পড়ে থাকতে দেখতে পায়। এরপর পুলিশ ওই ঘর থেকে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে সুরতাহাল রিপোর্ট তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে পাঠানো হয়।

 
সাপাহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাই জানান, এটি হত্যা না আত্নহত্যা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলেই বুঝা যাবে। প্রাথমিক ভাবে এ বিষয়ে থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন

©2014 - 2019. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com