শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:২৩ অপরাহ্ন

সিরিজ বাঁচাতে তৈরি বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেক্স :প্রথম ম্যাচে ১৫১ রানের হার। কোনো ভাবেই হারতে রাজি নয় এই সিরিজ। তাই তো ঢাকা টেস্টের জন্য পুরোদমে তৈরি হচ্ছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। প্রতিটি ক্রিকেটার নিজেদের সর্বোচ্চ দিতে প্রস্তুত। বাংলাদেশ সময় রোববার (১১ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টা থেকে মিরপুর শের ই বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গড়াবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচ।

প্রথম ম্যাচ হেরে সমালোচনা কম শুনতে হয়নি বাংলাদেশকে। তাই তো জয়ের জন্য মরিয়া হয়ে আছে পুরো দল। টেস্টের অস্থায়ী অধিনায়ক মাহমুদউল্লার কন্ঠেও সেই দৃঢ়তাই ফুটে উঠলো। শনিবার (১০ নভেম্বর) ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের এখন দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার মত অবস্থা। আমাদের শক্তভাবে ফিরে আসতে হবে। এখানে অন্য কোনো সুযোগ নেই।’

জিমাবুয়ের বিপক্ষে এই টেস্ট হেরে গেলে ৫ বছর পর আবার ঘরের মাঠে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা ফিরবে বাংলাদেশ শিবিরে। সাদা পোশাকে ঘরের মাঠে লাল-সবুজের দল সবশেষ হোয়াইটওয়াশ হয়েছিলো ২০১৩ সালে। তবে সেই দলটি ছিলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেই স্মৃতি কিছুতেই ফিরিয়ে আনতে রাজি নয় বাংলাদেশ।

ক্রিকেটের বড় ফরম্যাট নিয়ে নিজেদের দুশ্চিন্তার কথাও জানিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। ‘এই জায়গায় আমরা অন্য ফরম্যাটে যত ভাল করতে পারছি, টেস্ট ক্রিকেটে ততো ভাল করতে পারছি না। এটাই আমাদের সবচেয়ে বড় চিন্তার জায়গা। আবার আমরা যদি খুব বেশি চিন্তা করি তাহলে চাপটা আমাদের ওপরেই পড়বে। আমাদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলতে চাইব। আমরা যদি ঐ জিনিসটা করতে পারি, তাহলে আমাদের ভাল করার সুযোগ থাকবে।’

বাংলাদেশ নিজেদের শক্তভাবে তৈরি করলেও সিরিজ জয়ের জন্য তৃষ্ণার্ত হয়ে আছে জিম্বাবুয়ে। সংবাদ সম্মেলনে সফরকারীদের অধিনায়ক হ্যামিলটন মাসাকাদজা জানিয়ে দিয়েছেন, সিরিজ জয়ের সুযোগ শতভাগ কাজে লাগাতে চায় তারা।

বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে আমি সিরিজ জিততে ভালবাসি এবং অবশ্যই সিরিজ জিততে চাই। আমরা জানি সিরিজ জিততে হলে আমাদের ম্যাচটিও জিততে হবে। তাই দল হিসেবে আমরা আবারও শীর্ষে থাকতে চাই।’

প্রথম টেস্ট ওমন দাপুটে জয়ের পর মাসাকাদজার এই আশা ভুল বলাও যায় না। আত্মবিশ্বাসী হয়েই তিনি বলেন, ‘অবশ্যই আমরা আত্মবিশ্বাসী। আমাদের প্রথম টেস্টের পারফরম্যান্সই এই আত্মবিশ্বাস দিচ্ছে। এটা দলের জন্য সবসময়ই ভালো।’

তবে বাংলাদেশ কিছুটা নিশ্চিন্ত হতেই পারে, কারণ মিরপুর মাঠ তাদের জন্য বেশ ভাগ্যবান। তবে এবারও ভাগ্যটা সঙ্গ দেবে কিনা তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও ৫টি দিন।

সিরিজ বাঁচানো এই ম্যাচে

একাদশ থেকে বাদ পড়তে পারেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তার স্থানে সুযোগ পেতে পারেন মোহাম্মদ মিথুন।

সম্ভাব্য বাংলাদেশ একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, নাজমুল হোসেন শান্ত/ মোহাম্মদ মিথুন, মাহমুদউল্লাহ (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ রাহী/শফিউল ইসলাম/খালেদ আহমেদ।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com