বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন

তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইসিতে আ.লীগের আবেদন

নিউজ ডেক্স : ভিডিও কনফারেন্সে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়ায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আবেদন করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

আজ রোববার (১৮ নভেম্বর) রাতে দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য কর্নেল (অব.) ফারুক খানের নেতৃত্বে ১১ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে আবেদনটি জমা দেন।

বিকেলে নির্বাচন কমিশন রফিকুল ইসলাম তালুকদার সংবাদমাধ্যমকে বলেন, তারেকের বক্তব্য প্রদানের বিষয়টি কেউ প্রমাণসহ অভিযোগ দিলে আমরা ব্যবস্থা নেবো। যদি কেউ তথ্য প্রমাণসহ আমাদের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করেন, তাহলে আমরা আইনের মধ্যে থেকে যদি কিছু থাকে, তাহলে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বলবো।

‘আর যদি আইনের ভেতর কিছু না থাকে, তাহলে আমরা নিজেরা কমিশন বসে কি করা যায় তা পর্যালোচনা করে তারপরে সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবো।’

লন্ডন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আজ রোববার বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেন তারেক রহমান। এরপর এ বিষয়ে খতিয়ে দেখতে ইসির প্রতি অনুরোধ জানান আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

ইসি সচিবের সঙ্গে সাক্ষাতের পর কর্নেল (অব.) ফারুক খান সাংবাদিকদের বলেন, একজন দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি স্কাইপিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন বলে জানতে পেরেছি। কিন্তু আদালত বলেছেন, একজন পলাতক আসামি হিসেবে তারেকের বক্তব্য কোথায়ও প্রচার হবে না। তিনি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের পদেও থাকতে পারেন না।

‘তার (তারেক) স্কাইপিতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণ ও বক্তব্য প্রদান নির্বাচন আইনের লঙ্ঘন। এটা হতে পারে না। আশা করি, নির্বাচন কমিশন এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নেবে।’

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নেতাকর্মীদের আমরা দেখেছি, সুপ্রিম কোর্টে দিনভর নির্বাচনী প্রচার চালিয়েছেন। এটা আচরণ বিধির লঙ্ঘন। এই লঙ্ঘন নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ করার প্রয়াস। এটা চলতে থাকলে নির্বাচন আরো প্রশ্নবিদ্ধ হবে। এ বিষয়ে দ্রুত শক্ত পদক্ষেপ নিতে হবে।

এসব অভিযোগের বিষয়ে নির্বাচন কমিশন যথাযথ পদক্ষেপ নেবে বলে আশা করেন ফারুক খান।

নির্বাচনের সময় ‘হাসিনা: অ্যা ডটার’স টেল’ ডকুড্রামা মুক্তির বিষয়টি নির্বাচনী আইন লঙ্ঘন কি না- সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটি বিনোদনমূলক। মানুষ টাকা দিয়ে টিকিট কেটে এটি দেখছে। এখানে কোনো নির্বাচনী প্রচারণার বিষয় নেই।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নিচ্ছেন। এই খবর গণমাধ্যমে এসেছে। একজন পলাতক আসামি বক্তব্য গণমাধ্যমে আসতে পারে না। গণমাধ্যমও সেই বক্তব্য প্রচার করতে পারবে না বলে আদালতের নির্দেশনা আছে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা রাজনৈতিক দলের অপরাধ। তাদের এই টেলিকনফারেন্স করতে দেওয়া উচিত হয়নি। একই সঙ্গে সেই বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রচার করাও উচিত হয়নি। গণমাধ্যম যেন তার বক্তব্য প্রচার না করে সে অনুরোধ করবো।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় থেকে লন্ডনে অবস্থান করছেন তারেক রহমান। এর মধ্যে কয়েকটি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হন তিনি। বর্তমানে তিনি পলাতক। রাজনৈতিক আশ্রয়ে লন্ডনে রয়েছেন তারেক রহমান।

আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলে অ্যাডভোকেট ফজিলাতুন্নেছা বাপ্পী, রিয়াজুল কবীল কাউসার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com