বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১১:২৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
পাবনায় পতাকা উৎসবে একহাজার পতাকা বিতরন পাবনার সাঁথিয়ায় আলেমদের সাথে মতবিনিময়ের মধ্য দিয়ে শামসুল হক টুকু এমপির নির্বাচনি প্রচারনা শুরু নৌকার বিজয় না হলে উন্নয়ন থেমে যাবে: সমাজসেবী নিঘাত পারভীন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে জনগণের মুখোমুখি এমপি প্রার্থীরা তৃণমুলে কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ করবে বিএনপি : এমপি আয়েন আ.লীগ সমর্থকদের উপর হামলার অভিযোগ নিয়ে ইসিতে ইমাম রাজশাহীতে নাচোল, গোমস্তাপুর, ভোলাহাটের নবীন ভোটারদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত ভোটের প্রচারে সরকারি গাড়ি নয়, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ব্যবহার করছেন একুশে গ্রেনেড হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ি সন্ত্রাসী ও জঙ্গীবাদ মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে নৌকা প্রতিককে জয়ী করতে হবে- আসাদ পবার দর্শনপাড়া ইউপিতে মিলনের গণসংযোগ

ড.কামাল ছাড়া বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ফেরত আনার কেউ নেই–রেজা কিবরিয়া

নিউজ ডেক্স :সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া বলেছেন, আমি যে বাংলাদেশ চাচ্ছি, আমার মনে হয় আর কারও সেই ভিশন বা স্কোপ যেটা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল, সেই স্বপ্ন ফেরত আনার মতো ড. কামাল ছাড়া আর কেউ নেই।

আজ রোববার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে আনুষ্ঠানিকভাবে গণফোরামে যোগ দেন তিনি। এ সময় তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ড. কামালের হাতে মনোনয়ন ফরম জমা দেন। এ সময় বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীও উপস্থিত ছিলেন।

রেজা কিবরিয়া বলেন, “যে আদর্শের জন্যে আমার বাবা লড়াই করেছেন সে আদর্শ থেকে তারা (আওয়ামী লীগ) অনেক দূরে চলে গেছে। বাবা সরকারি কর্মচারী ছিলেন, বাংলাদেশকে সার্ভ করেছেন। বঙ্গবন্ধুর আন্ডারে ফরেন মিনিস্ট্রি তৈরি করেছিলেন। তিনি প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সময় ফরেন সেক্রেটারি ছিলেন। সার্কের যে অরিজিন্যাল পজিশন পেপার সেটা তিনিই তৈরি করেছিলেন। তিনি দেশকে সার্ভ করেছেন।”

শাহ এমএস কিবরিয়ার কোনো ব্যক্তি, গোষ্ঠী বা দলের জন্য কিছু আনুগত্য থাকতে পারে। কিন্তু তার প্রথম লক্ষ্য হলো দেশের অগ্রগতি- উল্লেখ করে রেজা কিবরিয়া বলেন, এটা থেকে আমি সরিনি, আমার বাবার আদর্শ থেকে সরতে চাই না। এ রূপে বাংলাদেশ আমি দেখতে চাই না, আমি চাচ্ছি একটা নতুন বাংলাদেশ। আমি যে বাংলাদেশ চাচ্ছি, আমার মনে হয় আর কারও সেই ভিশন, সেই স্কোপ যেটা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল; দেশটার ওই স্বপ্ন ফেরত আনার মতো আর কেউ নাই ড. কামাল ছাড়া।”

তিনি বলেন, “আপনারা জানেন আব্বা মারা গেছেন ২৭ জানুয়ারি ২০০৫। এরপর দুই বছর বিএনপি ক্ষমতায় ছিল। ঠিক আছে তারা কাজটা করতে পারেনি। দুই বছর তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছিল, তারাও করতে পারেনি। সাড়ে ৯ বছর আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায়। তারা একটা সুষ্ঠু তদন্ত করার মতো উদ্যোগ নেয়নি। এ তিনটা সরকার শুনলেন, এখন কার ওপরে আমার বেশি অসন্তষ্ট হওয়া উচিত বলে মনে করেন? দুই বছর না সাড়ে ৯ বছর কিছু করেনি; কার ওপরে আমার অসন্তোষ হওয়া উচিত?


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com