বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:২৫ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রামে এরশাদ পুত্র সাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক:কুড়িগ্রামের একটি আসন থেকে লাঙ্গল প্রতীকে প্রার্থী হতে চাইছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে সাদ এরশাদ। তবে একই আসন থেকে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন এরশাদের ভাই জি এম কাদের।
কুড়িগ্রাম-২ আসন থেকে ফরম তুলেছেন কাদের ও সাদ। তবে একই আসন থেকে দলের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম, দলের জেলা শাখার সদস্য সচিব শিল্পপতি পনির উদ্দিন আহমেদ, প্রয়াত সংসদ সদস্য তাজুল ইসলাম চৌধুরীর ছোট ভাই চৌধুরী সফিকুল ইসলামও দলের মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।
দলের জাপার বেশ কয়েকজন নেতা বলেন, এই আসনটি এরশাদের পরিবারেই থাকতে পারে বলে মনে করছেন তারা। তবে অন্য কাউকে মনোনয়ন দিলেও তারা কাজ করবেন। এই আসনটিতে দলের শক্তিশালী অবস্থান রয়েছে।
এই জেলায় মোট সংসদীয় আসন চারটি। আর এসব আসনে জাতীয় পার্টির ১০ জন নেতা লাঙ্গল প্রতীক পাওয়ার চেষ্টা করছেন।
কুড়িগ্রাম-১ আসন থেকে জাতীয় পার্টির মনোনয়নপ্রত্যাশী একজনই। তিনি হলেন চারবারের সংসদ সদস্য এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক। ফলে তার মনোনয়ন নিয়ে কোনো সংশয় নেই বলেই মনে করছেন নেতাকর্মীরা।
নাগেশ্বরী উপজেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব আ ম প আনিছুর রহমান ঢাকা টাইমসকে বলেন, ‘এখানে এমপি মোস্তাক সাহেবের প্রতি সব নেতানেত্রী আস্থাশীল। আর সে কারণে এখানে অন্য কেউ প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন নাই।’
নাগেশ্বরী উপজেলার আহ্বায়ক পৌর মেয়র আব্দুর রহমান মিয়া বলেন, ‘এই আসনে আমরা জোটগতভাবেই নির্বাচন করব। তৃণমূলের মানুষ মোস্তাফিুজর রহমান মোস্তাক এমপির প্রতি সমর্থন ও ভালোবাসা রয়েছে। এবারও তিনি জয়ী হবেন।’
কুড়িগ্রাম-৩ আসন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সদ্য নির্বাচিত সংসদ সদস্য আক্কাছ আলী সরকার এবং কেন্দ্রীয় নেতা আবু তাহের খায়রুল হক এটি।
২০১৪ সালে নির্বাচিত মাঈদুল ইসলাম মারা যাওয়ার পর উপনির্বাচনে জেতেন আক্কাছ।
কুড়িগ্রাম-৪ আসন থেকে প্রার্থী হতে চাইছেন দশম সংসদ নির্বাচনে জাপা মনোনীত প্রার্থী ইউনুছ আলী এবং দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কূটনৈতিক উপদেষ্টা আশারাফ উদ দৌলা তাজ।


©2014 - 2018. RajshahiNews24.Com . All rights reserved.
Design & Developed BY ThemesBazar.Com