শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন : রাবি উপাচার্য


, আপডেট করা হয়েছে : 28-09-2023

শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন : রাবি উপাচার্য

শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন, শেখ হাসিনা মানেই বেঁচে থাকার আলো বলে মন্তব্য করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১ টাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৭ তম জন্মদিন উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ও গণতান্ত্রিক সমাজতন্ত্র শীর্ষক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন, শেখ হাসিনা মানেই বেঁচে থাকার আলো। তার ৪২ বছর সময় কি দিয়েছেন তা আমরা জানি। সূর্য উঠলে সবাই দেখে। আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির ব্যাপার যে সূর্য কিভাবে দেখবো। ওনার আগামীর কর্মপরিকল্পনার মধ্যে আলোর দিশা আছে। ২০৪১ সালের মধ্যেই আমরা ওনার হাত ধরে আলোকিত বাংলাদেশ নিশ্চিত করবো। আজ যারা আমাদের বিরোধিতা করে তারা আগেও বিরোধিতা করেছে। আগামীতে তারা কি করবে সেটাও আমাদের ভাবতে হবে।


এ সময় তিনি বঙ্গবন্ধুর ভাষণের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, বাংলাদেশে ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করতে দেওয়া হবে না, এখানে মৌলবাদের রাজনীতি করতে দেওয়া হবে না। মুজিব এবং শেখ হাসিনার যে ছবি আকা আছে সেই ছবিতেই আছে মানবমুক্তির পথ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান (বিআইডিএস) এর মহাপরিচালক ড. বিনায়ক সেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. হুমায়ুন কবির এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক অবায়দুর রহমান প্রামাণিক।


মূখ্য আলোচকের বক্তব্যে ড. বিনায়ক সেন বলেন,  শেখ হাসিনার কাছ থেকে অনেক কিছু পাওয়ার আছে বাংলাদেশের। আমি কখনো আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ করিনি। আমার বড় ভাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি করেছে। কিন্তু আমি কখনো ছাত্র অবস্থায় রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলাম না। আমি যখন দেশের আগামী ১০ বছর নিয়ে চিন্তা করি তখন আমি দল না চিন্তা করি ব্যক্তি হিসেবে। বিশ্বের বিভিন্ন শক্তিকে ব্যালান্স করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চিন্তা এটা শেখ হাসিনা ছাড়া কারো মধ্যে দেখি না।


তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর সমাজতান্ত্রিক ভাবনা বর্তমানে খুবই প্রাসঙ্গিক। আমাদের দেশে এখনো ৪১ শতাংশ মানুষ কৃষিজীবী। এই প্রেক্ষাপটে পশ্চিমা দেশগুলোর উন্নত গণতান্ত্রিক সমাজতন্ত্র আমাদের দেশে প্রবর্তনের চেষ্টা করা অনুচিত হবে। বঙ্গবন্ধুর গণতান্ত্রিক সমাজতান্ত্রের একটা রেশিও আমাদের ঐতিহ্য হয়ে আছে।


আলোচনা সভার সভাপতিত্বের বক্তব্যে উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. হুমায়ুন কবির বলেন,  আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য আমরা যে কাজ করছি সেই তিনি আমাদের সাথে আরও অনেক দিন কাজ করে যাবেন বলে আশা করি। বুকে এত দুঃখ কষ্ট নিয়েও আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে কাজ করছেন। যাদের জন্য তিনি এত দুঃখ কষ্ট পেয়েছেন তাদেরই চিকিৎসার জন্য তিনি আদালতের রায় উপেক্ষা করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।



  • সম্পাদক ও প্রকাশক: ইঞ্জিনিয়ার মো: রায়হানুল ইসলাম
  •  নিউজ এডিটর: মো: জহুরুল ইসলাম

  • উপদেষ্টাঃ মোঃ ইব্রাহীম হায়দার