২৭ নভেম্বর ২০২২, রবিবার, ০৫:৪২:৪৪ পূর্বাহ্ন
ঢাকায় নিহত ডিবিসির সাংবাদিকের সিরাজগঞ্জের বাড়ীতে শোকের মাতম
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৮-০৬-২০২২
ঢাকায় নিহত ডিবিসির সাংবাদিকের সিরাজগঞ্জের বাড়ীতে শোকের মাতম

ঢাকার হাতিরঝিল এলাকায় নিহত ডিবিসি নিউজের সাংবাদিক আব্দুল বারীর (২৭) সিরাজগঞ্জের চন্ডিদাস গাঁতীর বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। পরিবারের সদস্যদের আহাজারি এলাকাবাসীও শোকাহত।

নিহত আব্দুল বারী সিরাজগঞ্জের সদর উপজেলার শিয়ালকোল ইউনিয়নের চন্দিদাসগাঁতী গ্রামের আব্দুল্লাহ শেখের ছেলে। তিনি ডিবিসি নিউজের জ্যেষ্ঠ প্রযোজনা নির্বাহী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। চাকরীর সুবাধে মহাখালীতে ব্যাচেলর হিসেবে একটি মেসে বসবাস করতেন।

বুধবার (৮ জুন) সকালে হাতিরঝিল এলাকা থেকে সাংবাদিক আব্দুল বারির ক্ষত-বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তিন ভাই ও তিন বোনের মধ্যে বারি ছিলেন দ্বিতীয়। বারী ছিলেন নম্র ও ভদ্র প্রকৃতির ছেলে। নিহত বারীর পরিবার খাওয়া-দাওয়া ছেড়ে দিয়েছেন। শুধু বারীকে দেখতে চাচ্ছেন, আর কান্নাকাটি করছেন। পুরো পরিবার শোকে নির্বাক হয়ে গেছেন। তাদের শান্তা দেওয়ার ভাষা নেই আমাদের।

নিহত বারীর মা আলেয়া বেগমের মায়ের আহাজারিতে আশপাশের বাতাস ভারী হয়ে ওঠেছে। বিলাপের সুরে তিনি বলতে বলছেন, ‘আমার ছেলেটার কী দোষ? এখন আমি বারীকে কোথায় পাবো। আমার সোনার ছেলে। তোমরা আমার ছেলেকে এনে দাও। আমার বাবা আমাকে আর মা বলে ডাকবে না। এই বলতে বলতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন।

নিহতের বড় ভাই আব্দুল আলিম জানান, ছোট বেলা থেকে ভীষণ মেধাবী ও শান্ত স্বভাবের ছিলেন বারী। ইচ্ছে ছিল কোরবানী ঈদের পরেই ভাইকে নতুনভাবে সংসার সাজিয়ে গুছিয়ে দেবো। কিন্তু সে আশা স্বপ্নই থেকে গেলো। কথা বলার মতো পরিস্থিতি নেই তার।

নিহতের বাবা আব্দুল্লাহ শেখ বলেন, কি কারণে আমার সান্ত প্রিয় ছেলেটা কে হত্যা করা হয়েছে আমার জানা নেই এবং
বারীর অফিসের কতৃপক্ষের কাছে জেনেছি এই মামলার তদন্তের দায়িত্ব নিয়েছেন সিআইডি। এই বলে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

ডিবিসি নিউজের সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি রিফাত রহমান জানান, নিহত সহকর্মী বারীর ময়নাতদন্তের কাজ শেষ হয়েছে। সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ডিবিসি কার্যালয়ে প্রথম জানাজা নামাজ শেষে মরদেহে সিরাজগঞ্জে গ্রামের বাড়িতে আনা হবে।

পরিবারের বরাদ দিয়ে রিফাত রহমান আরও জানান, নিহত বারীর লাশ আসলে গ্রামের চন্ডিদাসগাতী কবরস্থানে শেষ কাজ সম্পন্ন করা হবে।

শেয়ার করুন