০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার, ০৫:৩৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
যুক্তরাষ্ট্রে পেট্রলের দামে রেকর্ড, প্রভাব মূল্যস্ফীতিতে
  • আপডেট করা হয়েছে : ৬-০৬-২০২২
যুক্তরাষ্ট্রে পেট্রলের দামে রেকর্ড, প্রভাব মূল্যস্ফীতিতে

যুক্তরাষ্ট্রে পেট্রলের দাম রেকর্ড পরিমাণ বেড়েছে। দেশটিতে এক গ্যালন পেট্রলের দাম শনিবার (১১ জুন) গড়ে পাঁচ ডলার ছাড়ায়। এই প্রথম যুক্তরাষ্ট্রে পেট্রলের দাম এতটা বাড়লো। তাছাড়া এরই মধ্যে মূল্যস্ফীতি গত ৪০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ হয়েছে। খবর আল-জাজিরার।


আমেরিকান অটোমোবাইল অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য অনুযায়ী, শনিবার এক গ্যালন পেট্রলের মূল্য বেড়ে ৫ দশমিক ০০৪ ডলারে দাঁড়ায়। আগের দিন এই দাম ছিল ৪ দশমিক ৯৮৬ ডলার।


এদিকে জ্বালানির দামের এমন ঊর্ধ্বগতির ফলে চাপে পড়েছেন প্রেসিডেন্ট বাইডেনসহ ডেমোক্রেটিক দলের আইনপ্রণেতারা। কারণ চলতি বছরের নভেম্বরে দেশটিতে মধ্যবর্তী নির্বাচন।


যদিও বাইডেন প্রশাসন মূল্য নিয়ন্ত্রণে নানা ধরনের গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়েছেন। যার মধ্যে অন্যতম হলো কৌশলগত রিজার্ভ থেকে রেকর্ড সংখ্যক ব্যারেল ছাড় ও তেলের উৎপাদন বাড়ানোর জন্য ওপেককে চাপ। তারপরও দেশটিতে জ্বালানি তেলের দাম নাগালের বাইরে চলে গেছে।


তেলের দাম বেড়ে যাওয়ার পেছনে এক নয় বরং একাধিক কারণ কাজ করছে। রাশিয়ার ইউক্রেইনে আগ্রাসনের জেরে পশ্চিমাবিশ্ব রাশিয়ার জ্বালানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। অথচ, রাশিয়া বিশ্বের শীর্ষ তেল রপ্তানিকারক দেশের মধ্যে অন্যতম। বিশ্ব বাজারে রাশিয়ার তেলের যোগান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক তৈরি হয়েছে, ফলে তেলের চাহিদা বেড়ে গেছে।

শেয়ার করুন