০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার, ০৩:৪০:২০ পূর্বাহ্ন
রাষ্ট্র প্রতিবন্ধী হয়ে গেছে: ডা. জাফরুল্লাহ
নিজস্ব প্রতিবেদক :
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৩-০৮-২০২২
রাষ্ট্র প্রতিবন্ধী হয়ে গেছে: ডা. জাফরুল্লাহ

ভোলায় ছাত্রদল নেতা নিহতের ঘটনার সমালোচনা করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাষ্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘আজকে দেশের সমস্যা কোনো ব্যক্তি না, মূল প্রতিবন্ধী রাষ্ট্র। আমাদের রাষ্ট্র প্রতিবন্ধী হয়ে গেছে। আজকে সরকার প্রধান বলছেন, আপনারা আন্দোলন করেন, আন্দোলন শেষে আপনারা আসেন; আমি আপনাদের চা খাওয়াবো। সেখানে আন্দোলনে মাত্র রাস্তায় নেমেছে। পুলিশ গুলি করে দিলো। এটা কখনো কোনো সুস্থ লোকের কাজ হতে পারে না।‘

বুধবার রাজধানীর গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে এক পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ডা. জাফরুল্লাহ এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক ক্ষেত্রে নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়া স্বেচ্ছাসেবীদের কাজের যথাযথ সামাজিক মূল্যায়নের মাধ্যমে ভবিষ্যৎ স্বেচ্ছাসেবীদের অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্য নিয়ে এইচ.আর.এ ফাউন্ডেশন, ইউকে-এর পক্ষ থেকে ‘স্বেচ্ছাসেবী সম্মাননা পুরষ্কার’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধিতা নিয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে এইচ. আর. এ ফাউন্ডেশন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ইউটিউব চ্যানেল এবং ফেসবুক পেজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। একই সঙ্গে ৩৯ স্বেচ্ছাসেবী ও সংগঠনকে পুরস্কৃত দেওয়া হয়।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আজকে প্রতিবন্ধিতা উনার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) চারপাশে যারা আছে, এমনভাবে ঘিরে ধরেছে যে তারা ম্যাজিস্ট্রেটের হুকুম ছাড়া আইনকে যথাচ্ছভাবে ব্যবহার করে পুলিশ নিজেই গুলি করে দিয়েছে। আজকে রাষ্ট্রের এ প্রতিবন্ধকতার মাঝখানে আমরা আছি।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, আজকে শিক্ষিত বেকার থাকবে কেনো? বেকার থাকাটাও এক ধরনের প্রতিবন্ধিতা। কাজ নেই কিছু করতে পারে না। ফলে আত্মহত্যার হার বেড়েছে। এটা জাতির জন্য দুভার্গ্যজনক। এর জন্য আমাদের সবার সম্মলিত উদ্যোগ দরকার।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘রাষ্ট্রের দায়িত্ব আছে। কিন্তু আমাদের রাষ্ট্র তো ফ্যাসিষ্ট রাষ্ট্র। রাষ্ট্র তো নিজেই প্রতিবন্ধী। এখানে যারা শারীরিক প্রতিবন্ধী আছেন আপনারা না। আজকে রাষ্ট্র আমাকে প্রতিবন্ধী করে রাখতে চায় । আমার আওয়াজ বন্ধ করে রাখতে চায়।‘

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, ভাস্ক সংকর ধর, লন্ডন প্রবাসী শেখ মফিজুর রহমান।

শেয়ার করুন