২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার, ০৭:৫২:১৭ অপরাহ্ন
সুইস ব্যাংকের তথ্য চাওয়া নিয়ে রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
নিউজ ডেস্ক :
  • আপডেট করা হয়েছে : ১১-০৮-২০২২
সুইস ব্যাংকের তথ্য চাওয়া নিয়ে রাষ্ট্রদূত মিথ্যা বলেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অবৈধ অর্থের তথ্য জানতে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট অনুরোধ জানানো হয়নি বলে সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাথালি শুয়ার্ড যে বক্তব্য দিয়েছেন সেটিকে অসত্য বলছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি একথা বলেনি তিনি।

ড. মোমেন বলেন, ‘তিনি (সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাতালি চুয়ার্ড) অসত্য কথা বলেছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ও ফিন্যান্স সেক্রেটারি আমাকে আগে জানিয়েছিলেন, তারা তথ্য চেয়েছিলেন, তারা (সুইস ব্যাংক) উত্তর দেননি। আজকে আমি বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের সঙ্গে এটা নিয়ে কথা বলেছি। উনি আগে ফিনান্স সেক্রেটারিও ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘নো, আমরা আগে তথ্য চেয়েছি, তারা কোনো রেসপন্স করেননি। আমি বলেছি, আপনি এটি জানিয়ে দেন জনগণকে। কারণ এভাবে অসত্য কথা বলে পার পাওয়া উচিত নয়।’

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করবে কি না জানতে চাইলে মোমেন বলেন, আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর সাহেব বিবৃতি দিক। আমরা সেগুলো জানি। কিংবা অর্থসচিব বিবৃতি দিক, তখন আমরা সুইজারল্যান্ড দূতাবাসকে বলব।

গত বুধবার ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্ট অ্যাসাসিয়েশন, বাংলাদেশ (ডিক্যাব) আয়োজিত আলোচনায় অংশ নিয়ে ঢাকায় নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত নাতালি চুয়ার্ড বলেন, সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাংকে বাংলাদেশিদের অর্থ রাখার বিষয়ে নির্দিষ্ট করে বাংলাদেশ সরকার কোনো তথ্য চায়নি।

বাংলাদেশকে তথ্য না দেওয়ার বিষয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, আমরা সরকারকে এর কারণ জানিয়েছি। আমরা সরকারকে জানিয়েছি এ বিষয়ে কীভাবে আমরা একটি চুক্তিতে আসতে পারি। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট করে কোনো অনুরোধ জানানো হয়নি।

শেয়ার করুন