০২ ডিসেম্বর ২০২২, শুক্রবার, ০১:৩৮:৩৭ অপরাহ্ন
৪১০ হজযাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়লো বিমানের প্রথম ফ্লাইট
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৫-০৬-২০২২
৪১০ হজযাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়লো বিমানের প্রথম ফ্লাইট

৪১০ হজযাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়লো বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রথম হজ ফ্লাইট। রোববার (৫ জুন) সকাল ৯টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের জেদ্দার উদ্দেশে ছেড়ে যায় ফ্লাইটটি।


বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স সূত্র জানায়, এটিই বিমানের প্রথম হজ ফ্লাইট। বিমানটি জেদ্দায় পৌঁছাবে স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে।


পূর্বঘোষণা অনুযায়ী ৩১ মে হজ ফ্লাইট শুরু করার কথা ছিল। কিন্তু নানা অব্যবস্থাপনার কারণে যথাসময় হজ ফ্লাইট শুরু হয়নি। তাই আজ ৫ জুন থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হচ্ছে বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। এ উপলক্ষে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হজ ফ্লাইট উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের কথা। তবে সকাল ৮টা ২০ মিনিট পর্যন্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়নি।


চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই সৌদি আরবে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবার বাংলাদেশ থেকে হজ পালনের সুযোগ পাবেন ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় চার হাজার ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৩ হাজার ৫৮৫ জন হজে যেতে পারবেন।


বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের সংবাদ বিজ্ঞাপ্তিতে বলা হয়, করোনা মহামারির কারণে ২০২০ ও ২০২১ সালে বিদেশি নাগরিকদের জন্য হজযাত্রা বন্ধ ছিল। এবার হজযাত্রা উপলক্ষে সার্বিক প্রস্তুতি নিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। এ বছর বাংলাদেশ থেকে যে ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন হজযাত্রী সৌদি আরব যাবেন, তার ৫০ শতাংশ অর্থাৎ ২৮ হাজার ৭৯৩ জন হজযাত্রী পরিবহন করবে বিমান। তবে সরকারি প্রতিনিধিসহ ২৯ হাজার হজযাত্রী পরিবহনের পরিকল্পনা রয়েছে।


বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, রোড টু মক্কা ইনিশিয়েটিভের মাধ্যমে হজ ব্যবস্থাপনাকে আরও সুন্দর, সহজ ও প্রযুক্তিনির্ভর করা সম্ভব হয়েছে। হজযাত্রীদের জন্য ডেডিকেটেড বিমান সার্ভিস দেওয়া হচ্ছে। হজযাত্রীদের সমস্ত ইমিগ্রেশন ফরমালিটিজ ঢাকা থেকেই সম্পন্ন হচ্ছে। বিমান প্রি হজে ৬৫টি ডেডিকেটেড ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এর মধ্যে জেদ্দা রুটে ৫১টি ও মদিনা রুটে ১৪টি ফ্লাইট পরিচালিত হবে। চট্টগ্রাম-জেদ্দা রুটে ৯টি চট্টগ্রাম-মদিনা রুটে দুটি, সিলেট-জেদ্দা রুটে দুটি ফ্লাইট পরিচালিত হবে। এছাড়া পোস্ট হজের ক্ষেত্রে ৬৫টি ডেডিকেটেড ফ্লাইট পরিচালিত হবে। জেদ্দা থেকে ৫১টি ও মদিনা থেকে ১৪টি।


বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার জাগো নিউজকে জানান, হজযাত্রী পরিবহনে বিমানের নিজস্ব বোয়িং ৭৭৭-৩০০ইআর উড়োজাহাজ ব্যবহৃত হচ্ছে। প্রি-হজের সময়সীমা ৫ জুন থেকে ৩ জুলাই পোস্ট-হজের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া পোস্ট হজের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৪ জুলাই থেকে ১৩ আগস্ট।


২০১৮ সালে বিমান ৬২ হাজার ৭৯৬ জন ও ২০১৯ সালে ৬৬ জাজার ২৮৬ জন হজযাত্রী পরিবহন করেছিল।

শেয়ার করুন