১৩ অগাস্ট ২০২২, শনিবার, ০৯:৪০:০৩ অপরাহ্ন
সিরাজগঞ্জে ভাইরাল সেই বায়েজিদ পিস্তলসহ গ্রেপ্তার
  • আপডেট করা হয়েছে : ৩০-০৬-২০২২
সিরাজগঞ্জে ভাইরাল সেই বায়েজিদ পিস্তলসহ গ্রেপ্তার

সিরাজগঞ্জে গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর বিএনপি ও আওয়ামী লীগ কর্মীদের সংঘর্ষ চলাকালীন পিস্তল হাতে যে তরুণের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল, সেই বায়েজিদ আহম্মেদ টরি পিস্তল ও গুলিসহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।


বুধবার (২৯ জুন) রাত সাড়ে ৯টার দিকে সদর উপজেলার শিয়ালকোল বাজারের একটি চায়ের দোকানের সামনে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। 



বিষয়টি ঢাকা পোস্টকে নিশ্চিত করেছেন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) খোকন চন্দ্র সরকার। বায়েজিদ সিরাজগঞ্জ পৌর শহরের একডালা মধ্যপাড়া মহল্লার আজিম উদ্দিনের ছেলে। তার কাছ থেকে একটি পিস্তল ও এক রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।


এর আগে গত বছর ৩০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ ঘিরে সরকারি কলেজ রোডে দলটির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। সে সময় অস্ত্র হাতে তিন তরুণের ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। 




এর কয়েক দিন পর শহরের কোল গয়লা মহল্লার সুমন খলিফা এবং একই এলাকার জনি হাজাম নামে দুই যুবককে অস্ত্র ও বোমাসহ গ্রেপ্তার করেছিল ডিবি পুলিশ। কিন্তু বায়েজিদ এতদিন অধরাই ছিলেন। সংঘর্ষের সময় তার মাথায় ছিল ক্রিকেট খেলোয়াড়দের হেলমেট ও গলায় মাফলার। ওই সময় থানা পুলিশ, ডিবি পুলিশ, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির পক্ষ থেকে মোট ৯টি মামলা হয় থানা ও আদালতে।   


উপ-পরিদর্শক খোকন চন্দ্র বলেন, বায়েজিদ মাদকাসক্ত। অস্ত্র হাতে তিনি শহরের জেলখানা ঘাট ও হার্ডপয়েন্টসহ আশপাশের এলাকাগুলোতে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে দাঙ্গা-হামলা ও মারধরের পাঁচটি মামলা রয়েছে।


তিনি আরও বলেন, চার দিন আগেও তিনি সুইস গেট এলাকার পলাশ নামে একজনকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছেন। আহত পলাশ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তার স্বজনরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।


পিস্তল ও গুলিসহ গ্রেপ্তারের ঘটনায় রাতেই বায়েজিদের বিরুদ্ধে সদর থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে তাকে সেই মামলায় আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা। 

শেয়ার করুন