০৫ ডিসেম্বর ২০২২, সোমবার, ০৪:০২:০৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
রাজশাহীতে রেল কর্মচারিকে কুপিয়ে হত্যায় মামলা, গেপ্তার ১
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৬-০৭-২০২২
রাজশাহীতে রেল কর্মচারিকে কুপিয়ে হত্যায় মামলা, গেপ্তার ১

রাজশাহীতে রেল কর্মচারিকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় মৃত সোহেল রানার সাথে থাকা ফারুককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে ঘটনার পরে নিহত সোহেল রানার বাবা আব্দুল করিম বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। পরে বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে দুপুরে মৃতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর।

উল্লেখ্য, স্কুলছাত্র সানি হত্যার জের কাটতে না কাটতেই রাজশাহী নগরীতে এবার রেল কর্মচারি যুবককে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মহানগরীর বেলদারপাড়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদ এলাকায় ওই যুবককে কুপিয়ে জখম করা হয়।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় একজন আহত হয়েছেন। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহত যুবকের নাম সোহেল রানা। তিনি নগরের ১৯ নং ওয়ার্ডের শিরোইল কলোনি এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে। সোহেল রেলওয়ে ওয়েম্যান পদে চাকুরী করতেন। আর আহতের নাম ফারুক হোসেন। তাকে হাসপাতালে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাংলা মদ ব্যবসায়ী টগরের বাড়ীতে মদ কেনা নিয়ে সোহেল ও ফারুকের দ্বন্দ্ব হয়। এ সময় তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘরে। পরে টগরের বাড়ি থেকে বের হয়ে ফারুক সোহেলকে কুপিয়ে জখম করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। ঘটনার সময় ধস্তাধস্তিতে রাস্তার উপর পড়ে গিয়ে ফারুকও আহত হয়।

এ সময় দুইজনই মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। পরে স্থানীয়রা দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহেলকে মৃত ঘোষণা করেন।

বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম বলেন, কিভাবে সোহেল নিহত ও ফারুক আহত হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া য়ায়নি। তবে স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে ফারুক সোহেলকে ছুরিকাঘাত করেছে। কিন্তু ফারুক বলছে তারা গাড়ির ধাক্কায় আহত হয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

গত রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পূর্বশত্রুতার জেরে রাজশাহী নগরের হেতেম খাঁ সবজিপাড়া এলাকায় স্কুলছাত্র সানিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত সানি রাজশাহী পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সহসভাপতি রফিকুল ইসলাম ওরফে পাখির ছোট ছেলে।

সানি এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল। তার বাড়ি নগরের বোয়ালিয়া থানার দড়িখরবোনা এলাকায়। হাসপাতাল থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন