২৭ নভেম্বর ২০২২, রবিবার, ০৩:৪০:০০ পূর্বাহ্ন
পাকিস্তানকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল থাইল্যান্ড
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৬-১০-২০২২
পাকিস্তানকে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল থাইল্যান্ড

মেয়েদের এশিয়া কাপে চমক দেখাল থাইল্যান্ড। শেষ ওভারের টান টান উত্তেজনার লড়াইয়ে পাকিস্তানকে হারাল তারা।

২০তম ওভারে জিততে প্রয়োজন পড়ে ১০ রান। সেই রান ঠেকাতে ডায়ানা বেগের হাতে বল তুলে দেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বিসমাহ মারুফ।

কিন্তু অধিনায়কের মুখে হাসি ফোটাতে পারেননি তিনি। ঠিকই কাঙ্ক্ষিত ১০ রান তুলে নেন রোজেনান কোনাহ ও নাথান বোচাথান।

ওভারের প্রথম বলটি ওয়াইড দেন ডায়ানা বেগ। পরের ডেলিভারিতে আসে এক রান। দ্বিতীয় বলটিই বাউন্ডারিতে পরিণত করেন আট নম্বর ব্যাটার কানোহ। পরের দুই বলে তিনি নেন ৩ রান। ম্যাচ তখন টাই।

পঞ্চম বলটি মিডউইকেটে স্লগ করেই এক রানের জন্য দৌড়ান বোচাথান। জয়ের উল্লাসে মাতে থাই শিবির।

বৃহস্পতিবার সিলেটের মাঠে পাকিস্তানকে ১ বল বাকি থাকতে ৪ উইকেটে হারিয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়েছে থাইল্যান্ড। পাকিস্তান নারী দলের বিপক্ষে এটিই তাদের প্রথম জয়।

শুরুতে ব্যাট করতে নেমে সিদ্রা আমিনের অর্ধশতকে ৫ উইকেটে ১১৬ রান তুলে পাকিস্তান।

জবাবে নেমে থাইল্যান্ডের ওপেনার নাথাকান চান্থাম করেন হাফ সেঞ্চুরি। ৫১ বলে ৬১ রানের ম্যাচজয়ী ইনিংস খেলেন তিনি।

পাকিস্তানের বোলারদের সামনে চান্থাম ছাড়া আর কেউ বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান মাত্র ১৭। সেটি খেলেছেন থাই অধিনায়ক নারুইমল চাইওয়াই। ওপেনার নান্নাপাথ কোনচারনকাইয়ের ব্যাট থেকে এসেছে ২৪ বলে ১৩ রান।

তবে ওপেনিংয়ে নেমে একপ্রান্ত আগলে রেখে দুর্দান্ত ইনিংস খেলে চান্থামই দলের জয়ে ভিত গড়ে দেন।

শেষ দিকে কোনাহ (৩) ও বোচাথান (৯) রান করে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন।

পাকিস্তানের হয়ে দুটি করে উইকেট শিকার করেছেন নিদা দার ও তুবা হাসান। একটি করে পেয়েছেন নাসরাত সান্ধু ও কায়েনাথ ইমতিয়াজ।

 

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১১৬ রানেই থেমে যায় পাকিস্তানের ইনিংস। ওপেনার সিদরা আমিন ৬৪ বলে খেলেন ৫৬ রানের ইনিংস। বাকিরা কেউ বিশের ঘরও ছুঁতে পারেননি।

ওপেনার মুনিবা আলি ১৪ বলে ১৫, নিদা দার ২২ বলে ১২, আর আলিয়া রিয়াজ ৯ বলে ১০ রানে অপরাজিত থাকেন।

৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে ২টি উইকেট নেন থাইল্যাান্ডের অফস্পিনার সরনাইন তিপোচ।

শেয়ার করুন