১৩ অগাস্ট ২০২২, শনিবার, ১০:১৭:০৪ অপরাহ্ন
একদিনে ৭২৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৩ লাখ ৮৬ হাজার
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৩-০৭-২০২২
একদিনে ৭২৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৩ লাখ ৮৬ হাজার

মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে আরও ৭২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন তিন লাখ ৮৬ হাজার ৬২ জন। এছাড়া করোনা থেকে সেরে উঠেছেন দুই লাখ ৬৭ হাজার ৬০৩ জন।


রোববার (৩ জুলাই) সকালে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার প্রতিমুহূর্তের হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে সর্বশেষ এসব তথ্য জানা গেছে।


ওয়ার্ল্ডোমিটারসের তথ্যানুযায়ী, এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৬৩ লাখ ৬০ হাজার ৭৮৭ জন। রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৫৫ কোটি ৪০ লাখ ৩১ হাজার পাঁচজন। এছাড়া সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫২ কোটি ৮৭ লাখ ২৯ হাজার ১৩০ জন।


গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে ব্রাজিলে। দেশটিতে ২৪ ঘণ্টায় ১৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে শনাক্ত হয়েছেন ৪২ হাজার ৭২০ জন রোগী। এ নিয়ে শনাক্ত বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন কোটি ২৪ লাখ ৭৬ হাজার ৯২০ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ছয় লাখ ৭১ হাজার ৯৩৮ জন। এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ছয় হাজার ৯০২ জন। এ নিয়ে দেশটিতে সুস্থতার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন কোটি আট লাখ ৮০ হাজার ৫৮৪ জন।


করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে সংক্রমিত ১৫ হাজার ২৪৫ জন এবং মারা গেছেন ২৭ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত ৮ কোটি ৯৫ লাখ ২২ হাজার ৩২৮ জন এবং মারা গেছেন ১০ লাখ ৪৩ হাজার ৩০৮ জন। আর সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮ কোটি ৫০ লাখ ১০ হাজার ৩৪১ জন।


ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমিত ৮৪ হাজার ৭০০ জন এবং মারা গেছেন ৫৯ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত এক কোটি ৮৬ লাখ ৯৫ হাজার ৯৫৪ জন শনাক্ত এবং মারা গেছেন এক লাখ ৬৮ হাজার ৪৮৪ জন।


গত ২৪ ঘণ্টায় রাশিয়ায় করোনায় মারা গেছেন ৫১ জন এবং সংক্রমিত হয়েছেন তিন হাজার ২৮৫ জন। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট শনাক্ত এক কোটি ৮৪ লাখ ৩৬ হাজার ৬৭৯ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৮১ হাজার ২১৬ জনের।


একই সময়ে উত্তর কোরিয়ায় নতুন সংক্রমিত ১০ হাজার ৬৯৫ জন এবং মারা গেছেন ৭ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২৪ হাজার ৫৬২ জন। দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক কোটি ৮৩ লাখ ৭৯ হাজার ৫৫২ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৮২ লাখ ১৪ হাজার ৫০১ জন।


এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ায় ৫৪ জন, জাপানে ১৬ জন, ইন্দোনেশিয়ায় পাঁচজন, মেক্সিকোতে ৩১ জন, পোল্যান্ডে ছয়জন, থাইল্যান্ডে ১৭ জন, চিলিতে ৩৮ জন, তাইওয়ানে ৯৬ জন, গ্রিসে ২৬ জন, ফিলিপাইনে ১৩ জন, পেরুতে ১৯ জন, নিউজিল্যান্ডে ২১ জন, গুয়েতেমালায় ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শেয়ার করুন