০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার, ০৫:০৫:৪৭ পূর্বাহ্ন
শুক্র ও শনিবার যেসব এলাকায় ব্যাংক খোলা
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৮-০৭-২০২২
শুক্র ও শনিবার যেসব এলাকায় ব্যাংক খোলা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে রাজধানী ঢাকা শহরে কুরবানি পশুর হাটের আশেপাশের ব্যাংকের শাখাগুলো শুক্র ও শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একইসঙ্গে ব্যাংক প্রয়োজন বোধে কুরবানির পশুর হাটে অস্থায়ী বুথও খুলতে পারবে। 

এছাড়া তৈরি পোশাকশিল্পে কর্মরত শ্রমিক, কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের বেতন-বোনাস ও অন্যান্য ভাতা পরিশোধের সুবিধার জন্য শিল্পসংশ্লিষ্ট এলাকায় শুক্র ও শনিবার ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।ওইসব এলাকার সংশ্লিষ্ট শাখায় স্বাভাবিক ব্যাংকিং কার্যক্রম চলবে।  

সম্প্রতি এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পৃথক পৃথক সার্কুলার জারি করে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে। 

সার্কুলারে বলা হয়, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত কুরবানির পশুর হাটগুলোর আশেপাশের ব্যাংকের শাখাগুলো ৭ জুলাই পর্যন্ত স্বাভাবিক লেনদেনের পর বিকাল ৬টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত অতিরিক্ত দুই ঘণ্টা খোলা রাখতে হবে। একইসঙ্গে আগামী শুক্র ও শনিবার সংশ্লিষ্ট এলাকার ব্যাংকের শাখাগুলো সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত স্বাভাবিক ব্যাংকিং কার্যক্রম চালু রাখতে হবে।  এতে আরও বলা হয়, কুরবানির পশুর হাটে ব্যাংক নিজ বিবেচনায় বিশেষ বুথ স্থাপন করতে পারবে। ওইসব বুথও রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা রাখতে হবে। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্য এক নির্দেশনায় বলা হয়, ঈদুল আজহার আগে তৈরি পোশাকশিল্প-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কর্তৃক রপ্তানি বিল পরিশোধ ও ওই শিল্পে কর্মরত শ্রমিক, কর্মচারী, কর্মকর্তাদের বেতন-বোনাস ও অন্যান্য ভাতা পরিশোধের সুবিধার জন্য ঢাকা, আশুলিয়া, টঙ্গী, গাজীপুর, সাভার, ভালুকা, নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামে অবস্থিত তফসিলি ব্যাংকের তৈরি পোশাকশিল্প-সংশ্লিষ্ট শাখাগুলো পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করে পূর্ণ দিবস খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হলো।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, ওই দুই দিন বাংলাদেশ ব্যাংকের ক্লিয়ারিং ব্যবস্থা চালু থাকবে। তবে ক্লিয়ারিং ব্যবস্থা সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার স্বার্থে উল্লিখিত এলাকার বাইরে অবস্থিত কোনো ব্যাংক শাখার ওপর চেক দেয়া যাবে না।

শেয়ার করুন