০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার, ০৫:১৪:১১ পূর্বাহ্ন
১০ কিমি ধাওয়া করে মাদক ব্যবসায়ীর গাড়িতে গুলি পুলিশের
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৯-০৮-২০২২
১০ কিমি ধাওয়া করে মাদক ব্যবসায়ীর গাড়িতে গুলি পুলিশের

ব্যস্ত সড়কে বেপরোয়া গতিতে একের পর এক গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে এগিয়ে চলা গাড়ির পিছনে কখনও গাড়ি নিয়ে, কখনও গাড়ি থেকে নেমে চালককে ধরার চেষ্টা করছে পুলিশ।

ভারতের পঞ্জাবের ঘিঞ্জি রাস্তায় যেন হলিউডের অ্যাকশন মুভি ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’-এর দৃশ্য! সোমবার সেই সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে এল।খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

পঞ্জাবের ফিরোজাবাদের একটি রাস্তায় টহল দিচ্ছিলেন পুলিশকর্মীরা। সরু রাস্তার মধ্যে দিয়ে বেপরোয়া গতিতে এগিয়ে আসছিল সাদা রঙের একটি মারুতি সুজুকি ডিজায়ার।

পুলিশ গাড়িটিকে দাঁড়াতে বলে। কিন্তু চালক তা পাত্তাই দেননি। বরং সামনে আসা একটি গাড়ি এবং একটি মোটরবাইক চালককে ধাক্কা মেরে এগিয়ে চলে গাড়িটি। সঙ্গে সঙ্গে পিছু নেয় পঞ্জাব পুলিশের গাড়ি।

ভিডিওতে দেখা যায়, বেশ কিছুক্ষণ পর ওই সাদা মারুতিটি তাড়া করে প্রায় ধরে ফেলে পুলিশের কালো রঙের স্করপিও। দুই গাড়ির গতির খেলায় স্কুটার নিয়ে এক নারীকে রাস্তায় পড়ে যেতে দেখা যায়।

প্রায় গাড়িটিকে যখন ধরে ফেলেছে পুলিশ, চালক আবার গতি বাড়ান। একের পর এক গাড়িকে ধাক্কা দিতে দিতে এগিয়ে চলে। সামনে গাড়ির একাংশ ভেঙে পড়েছে। তার মধ্যেই ছুটে চলেছে গাড়িটি।

এই ভাবে একটি ট্র্যাফিক সিগন্যালে গাড়িটির গতি একটু কম হতেই বন্দুক হাতে ঝাঁপিয়ে পড়েন এক পুলিশ অফিসার। ওই গাড়ির ভিতর ছিলেন দুই ব্যক্তি। তারা গাড়ির গতি বাড়িয়ে পালানোর চেষ্টা করেন।

এই ভাবে ১০ কিলোমিটার দৌড়ের পর গাড়ির টায়ারে গুলি করে দুই ব্যক্তিকে থামায় পুলিশ। কেন একের পর এক সিগন্যাল ভেঙে চলছিল ওই গাড়ি? পুলিশ জানায়, ধৃতদের কাছ থেকে ১০ গ্রাম হেরোইন পাওয়া গেছে। এ কারণেই জীবন বাজি রেখে পালাচ্ছিলেন তারা।

শেয়ার করুন