০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, সোমবার, ০৩:৩৭:২৬ অপরাহ্ন
রাসিক মেয়রের সাথে ইউরোপীয় কমিশনের প্রতিনিধি দলের মতবিনিময়
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৫-০৯-২০২২
রাসিক মেয়রের সাথে ইউরোপীয় কমিশনের প্রতিনিধি দলের মতবিনিময়

হিটওয়েভ থেকে রাজশাহী মহানগরীর স্লাম এরিয়ায় বসবাসরতদের কষ্ট লাঘবে রাজশাহীতে রেড ক্রিসেন্টের উদ্যোগে জার্মান রেডক্রস ও ডেনিস রেডক্রসের সহযোগিতায় একটি প্রকল্পের বাস্তবায়ন কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। প্রকল্পের সার্বিক সম্ভাবতা যাচাইয়ে রাজশাহী সফরে এসেছিলেন ইউরোপীয় কমিশনের একটি প্রতিনিধি দল।

সোমবার বিকেলে নগর ভবনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও রেড ক্রিসেন্ট রাজশাহী সিটি ইউনিটের চেয়ারম্যান এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের সাথে মতবিনিময় করেন ইউরোপীয় কমিশনের প্রতিনিধি দল।

মত বিনিময়কালে মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, খরা প্রবন এলাকা রাজশাহীর আবহাওয়া পরিবর্তনে ব্যাপক বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন। ড্রেনেজ ও সুয়ারেজ সিস্টেমের উন্নয়ন করা হয়েছে। পরিবেশের উন্নয়নে কোথাও কোন ফাকা ল্যান্ড রাখা হয়নি, সর্বত্র সবুজায়নের কাজ করা হচ্ছে। নগরীর দক্ষিণে পদ্মা নদীর পাড়কে অনন্য সুন্দর করে পর্যটকদের কাছে আর্কষর্ণীয় করে গড়ে তোলা হচ্ছে। ড্রেন-রাস্তার উন্নয়ন করা হচ্ছে। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন প্রকল্প। যার মাধ্যমে নারীদের আত্ননির্ভরশীল হচ্ছে।

তিনি বলেন, হিটওয়েভ একটি নতুন বৈশ্বিক সমস্যা। রাজশাহীর জলবায়ুর পরিবর্তন ঘটেছে। খরার সময় প্রবল্বিত হয়েছে। বৃস্টিপাত কমে গেছে। এখানে পানির স্তর নেমে যাচ্ছে। যার ফলে সুপেয় পানির অভাব প্রকট আকার ধারণ করেছে। আর্সেনিকের মাত্রা বাড়ছে। খরাজনিত কারণে শিশু ও বয়স্কদের বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এটি মোকাবেলায় আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তবে আমাদের একার পক্ষে মোকাবেলা সম্ভব নয়। এ বিষয়ে তাদের সহযোগিতা কামনা করেন মেয়র।

রেড ক্রিসেন্টের কর্মকান্ডের প্রশংসা করে মেয়র বলেন, রেড ক্রিসেন্ট করোনাকালীন সময়ে যে ভূমিকা রেখেছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। খাদ্য সহায়তা, আর্থিক প্রণোদনা, অক্সিজেন সিলিন্ডার সরবরাহসহ বিভিন্ন মানবিক কাজে সার্বিকভাবে সহযোগিতা অব্যাহত রেখেছিল। রাজশাহীতে রেডক্রিসেন্টের ব্লাড ব্যাংকটি উন্নয়ন করতে হবে। মত বিনিময়কালে রাজশাহীর পরিচ্ছন্ন, সুন্দর পরিবেশের ভূয়শী প্রশংসা করেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। রাজশাহীতে সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে স্বাস্থ্যসেবাসহ বিভিন্ন ধরণের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

রাজশাহী মহানগরীর ৫টি ওয়ার্ডে প্রচন্ড খরাপীড়িত মানুষকে স্বস্তি দেবার জন্য একটি প্রকল্প নেয়া হয়েছে। সেসব এলাকার স্বাস্থ্য শিক্ষা গরমে ঝুঁকিপূর্ণ মানুষকে সহায়তা প্রদানসহ বিভিন্ন কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। তাপ প্রবাহের সময়ে স্বাস্থ্যসেবা ঝুঁকিপূর্ণ কমিউনিটিকে স্বাস্থ্যসেবা দুর্যোগকালীন আর্থিক সহায়তাসহ সামগ্রিকভাবে রক্ষার জন্য সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ করছে। নগরীর ২৪, ১৯, ৭, ২৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে।

প্রতিনিধি দলে ডেনিস রেড ক্রসের কান্ট্রি ম্যানেজার ইমিলিন ইনতারান মানাবানাঙ, হেলথ ম্যানেজার ড. আরিফা, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মোঃ মহিউদ্দিন, ডিজি ইকো রিজিওনাল ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন থিমেটিক এক্সপার্ট মি, মিশেল সিসিক, ইকো রিজিওনাল ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন থিমেটিক এক্সপার্ট ডেভিড জাপ্পা, ডিজি ইকো বাংলাদেশ আন্না অরলানডিনি, প্রোগ্রাম এ্যাসিসটেন্ট মকিত বিল্লাহ, জার্মান রেডক্রসের প্রোগ্রাম ডেলিগেট জালিল লনি, এফবিএফ ডেলিগেট খায়রুল শেখ, জার্মান রেড ক্রসের সিনিয়র প্রজেক্ট অফিসার সিলভি আফরিন মৈত্রী, আলমগীর আহমেদ ছিলেন।

মতবিনিময়কালে বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির ম্যানেজিং বোর্ড সদস্য প্রফেসর সারওয়ার জাহান সজল, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাজশাহী সিটি ইউনিটের ভাইস চেয়ারম্যান রেজাউল করিম রাজু, কমিটির সদস্য প্রফেসর রুহুল আমিন প্রামানিক, প্রফেসর তানবিরুল আলম, প্রফেসর ফরিদা সুলতানা, প্রফেসর মোকবুল হোসাইন, আরিফুল হক কুমার, ডাঃ এফএমএ জাহিদসহ যুব সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন