১৯ অগাস্ট ২০২২, শুক্রবার, ১১:০৫:৩৬ পূর্বাহ্ন
ওমর সানীর যে কথায় খুশি দেলোয়ার জাহান ঝন্টু
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৫-০৬-২০২২
ওমর সানীর যে কথায় খুশি দেলোয়ার জাহান ঝন্টু

চড় ও পিস্তলকাণ্ডে বক্তব্য-পাল্টা বক্তব্য চলছে। জায়েদ খানের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ নায়ক ওমর সানীর। 

এদিকে শুরু থেকেই নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন জায়েদ খান। এ অভিনেতা মনে করছেন, পারিবারিক ও ব্যক্তিগত বিষয় সামনে এনে শিল্পীদের ছোট করছেন ওমর সানী। 

তার সেই দাবিকে আরো পোক্ত করে দিল চিত্রনায়িকা মৌসুমীর এক অডিওবার্তা। যেখানে স্বামীর করা সব অভিযোগ এক প্রকার উড়িয়ে দিলেন তিনি।

উল্টো সানীকে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন কিছুটা। জায়েদের সম্মান নষ্ট করে ওমর সানী কেন এতো আনন্দ পাচ্ছেন - প্রশ্ন মৌসুমীর।

এমন পরিস্থিতিতে উপায় না পেয়ে ফেসবুক লাইভে এসে নিজের ছেলে ফারদিন ও মেয়ে ফাইজাকে অভিভাবক ঘোষণা দেন ওমরা সানী। এ চিত্রতারকা জানান, জায়েদের বিরুদ্ধে বলা তার অভিযোগের বিষয়ে তিনি অটল আছেন। তার ছেলে সবই জানে।

সানী বলেন,  ‘একটা কথা বলতে চাই, আমি কি বলেছি না বলেছি সম্পূর্ণ আমার ছেলে ফারদিন, আমার মেয়ে ফাইজা জানে। আমাদের কাছে যথেষ্ট পরিমাণ প্রমাণ আছে জায়েদ খান যে মৌসুমীকে ডিস্টার্ব করেছে। ফারদিন বলুক আর ফাইজা বলুক তাদের মায়ের সম্পর্কে। আমার ছেলেমেয়েরা কথা বলুক এ বিষয়গুলো নিয়ে। তারা যা সিদ্ধান্ত নেবে সেটাই হবে। আমি কিছু বলতে চাই না। আমি আমার ছেলে-মেয়েদের গার্ডিয়ান মানছি।’

আর ওমর সানীর এ কথাই ভীষণ ভালো লেগেছে বরেণ্য নির্মাতা দেলোয়ার জাহান ঝন্টুর। পাশাপাশি শিগরিরই দ্বন্দ্ব মিটিয়ে সুখের সংসার ফের শুরু করতে সানী-মৌসুমীকে আহ্বান জানান এ নির্মাতা।

এই পরিচালক বলেন, ‘সানী-মৌসুমীর উচিত নিজেরা বসে আলাপ করে সব ভুল সংশোধন করা। ঝামেলা মিটিয়ে নেওয়া। আমি ওমর সানীর একটা কথায় খুশি হয়েছি, সে তার ছেলেমেয়েকে অভিভাবক মেনে তাদের উপর সব সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিয়েছে৷ সন্তানরা বিচারক হলে তাদের সংসার ও তাদের জন্য ভালোই হবে আমার মনে হয়।’

তবে সানীর দোষও দেখছেন ঝন্টু। সানীর বিচার চান তিনি। তার মতে, এ দম্পতি কিছুদিনের মধ্যে দাদা-দাদি হবেন। আর এখন এসব কি হচ্ছে!

রাগান্বিত স্বরে ঝন্টু বলেন, ‘কেন স্ত্রীকে সানী শাসনে রাখতে পারে না? কেন তার অভিযোগের পর স্ত্রী তারই বিরুদ্ধে কথা বলবে? ওর মতো নায়ক এদেশে কয়টা আছে? হিট সুপারহিট সব সিনেমা দিয়েছে ও। প্রেম করে মৌসুমীকে বিয়ে করেছে। তাদের ছেলেও বিয়ে করেছে, নাতি আসবে৷ এখন এসব কি!’

চিত্রনায়িকা মৌসুমীর বক্তব্যে যারপরনাই হতাশ ঝন্টু। প্রথম সারির একজন অভিনেত্রী মুখে জায়েদ খানের প্রশংসা ভালো ঠেকেনি এ নির্মাতার কাছে।

দেলোয়ার জাহান ঝণ্টু বললেন, ‘মৌসুমীকে নিয়ে কি বলব, নিজেই আসলে বুঝে উঠতে পারছি না। জায়েদ খানের মতো ছেলের সাথে ওর কিসের বন্ধুত্ব? দেশে বন্ধুত্ব করার মতো নায়কের অভাব পড়েছে? সারাদেশের মানুষ মৌসুমীকে এক নামে চেনে, জানে ও সম্মান করে। তার তো সেদিকে ভাবা উচিত৷ আমি আসলে হতাশ।’

শেয়ার করুন