০৭ অক্টোবর ২০২২, শুক্রবার, ৬:০২:৩৬ অপরাহ্ন
কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে জামানত হারিয়েছেন দুই মেয়র প্রার্থীসহ ৪১ কাউন্সিলর প্রার্থী
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৯-০৬-২০২২
কুমিল্লা সিটি নির্বাচনে জামানত হারিয়েছেন দুই মেয়র প্রার্থীসহ ৪১ কাউন্সিলর প্রার্থী

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দুই প্রার্থী ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকের রাশেদুল ইসলাম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হরিণ প্রতীকের কামরুল আহসান বাবুল জামানত হারিয়েছেন। এছাড়া সংরক্ষিত নারী ও সাধারণ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে জামানত হারান প্রায় অর্ধেক প্রার্থী। গত বুধবার (১৫ জুন) কুমিল্লা সিটির ২৭টি সাধারণ ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। কুমিল্লা সিটির তৃতীয়বারের এ নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচ জন, কাউন্সিলর পদে ১০৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৬ প্রার্থী ভোটের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন।


সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত ফলাফল বিশ্লেষণে জানা গেছে, সাধারণ ওয়ার্ডে ১০৮ জন প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ৪১ জন প্রার্থী। তারা হলেন—নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ইকবাল হোসেন, আবুল কালাম আজাদ, ২ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে আবদুল মন্নাফ, নাহিদা আক্তার, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে সাত প্রার্থীর মধ্যে আরিফুল ইসলাম চৌধুরী, মনিরুল আলম, স্বপন আলী, আবদুল্লাহ আল মোমেন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে রোকসানা আক্তার। ৭ নম্বর ওয়ার্ডে তিন জন প্রার্থীর মধ্যে রিয়াজ উদ্দিন খান, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে বিকাশ চন্দ্র দাস, রাজন পাল, সৈয়দ মহসিন আলী, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে আশিকুর রহমান, মিজানুর রহমান, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে কাজী সামছুল আলম, মো. পারভেজ হানিফ, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে তিন প্রার্থীর মধ্যে ওমর ফারুক, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে তিন প্রার্থীর মধ্যে আহাদ হোসেন বিশ্বাস জামানত হারিয়েছেন। এছাড়া ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে সাইফুল ইসলাম, ১৭ নম্বর ওয়ার্ডে ছয় প্রার্থীর মধ্যে মো. সাইফুল ইসলাম, মো. হাবিব, সৈয়দ রুমন আহমেদ, ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে তিন প্রার্থীর মধ্যে নাছিম হোসেন, ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে মোজাম্মেল হোসেন, ২০ নম্বর ওয়ার্ডে তিন প্রার্থীর মধ্যে মাহে আলম, ২১ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে জামাল হোসেন কাজল, মো. মিন্টু, আক্তার হোসেন, ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে সাত প্রার্থীর মধ্যে মাহাবুব আলম, মো. আবু হাসান, নুরুল ইসলাম, শাহজালাল, ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে মো. আবু হানিফ, নাসির উদ্দিন, ২৫ নম্বর ওয়ার্ডে ছয় প্রার্থীর মধ্যে রফিকুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম, অহিদুর রহমান, ২৭ নম্বর ওয়ার্ডে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে জালাল উদ্দিন আহমেদ, মকবুল আহমেদ ও হোসাইন মোশারফ জামানত হারিয়েছেন।


সংরক্ষিত ওয়ার্ড: এই পদে ৩৬ জন প্রার্থীর মধ্যে জামানত হারিয়েছেন ৯ জন প্রার্থী। তারা হলেন—১ নম্বর ওয়ার্ডে ছয় প্রার্থীর মধ্যে মমতাজ বেগম, রোকসানা ইসলাম, ছফুরা সুলতানা এনি, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে ফাতেমা আক্তার, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে মোসা. ফাতেমা আক্তার, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে ছয় প্রার্থীর মধ্যে শিউলি আক্তার, ৭ নম্বরে চার প্রার্থীর মধ্যে ফারজানা আক্তার, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে আমেনা বেগম ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে চার প্রার্থীর মধ্যে সেলিনা আক্তার জামানত হারিয়েছেন।


সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী জানান, প্রদত্ত ভোটের আট ভাগের একভাগ ভোট না পেলে জামানত বাজেয়াপ্ত হওয়ার বিধান রয়েছে। তিনি আরো জানান, মেয়র ও কাউন্সিলর পদে যারা নির্বাচিত হয়েছেন তাদের গেজেট প্রকাশের জন্য বেসরকারিভাবে ঘোষিত ফলাফল নির্বাচন কমিশন, স্হানীয় সরকার মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দফতরে প্রেরণ করা হয়েছে। গেজেট প্রকাশের পর তাদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।


প্রার্থীদের পোস্টার-ব্যানার অপসারণ চলছে :সিটি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের পোস্টার ও ব্যানার অপসারণের কাজ চলছে। এ জন্য কুসিকের পরিচ্ছন্নতা বিভাগের ২৭০ জন কর্মীকে রাস্তায় নামানো হয়েছে। ২৭টি ওয়ার্ডে এ কার্যক্রম শেষ করতে শনিবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হলেও আরো দুই দিন সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. সফিকুল ইসলাম। শুক্রবার বিকালে কুমিল্লা সিটি কপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, প্রতিটি ওয়ার্ডে ১০ জন করে কর্মী নির্বাচনের পরদিন গত বৃহস্পতিবার থেকেই কাজ শুরু করেছেন।

শেয়ার করুন