০৭ অক্টোবর ২০২২, শুক্রবার, ৬:৫৩:২১ অপরাহ্ন
সারা দেশে বিক্ষোভ ডেকেছে বিএনপি
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৬-০৭-২০২২
সারা দেশে বিক্ষোভ ডেকেছে বিএনপি

সারা দেশে তিন দিন বিক্ষোভ ডেকেছে বিএনপি। লোডশেডিং ও জ্বালানি খাতে ‘অব্যবস্থাপনার’ অভিযোগ তোলে এর প্রতিবাদে এই কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটি।

মঙ্গলবার বিকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কর্মসূচির কথা জানান। 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘লোডশেডিং ও জ্বালানি খাতে অব্যবস্থাপনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর জন্য ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ ও অন্যান্য মহানগর আগামী ২৯ ও ৩০ জুলাই এবং জেলা পর্যায়ে আগামী ৩১ জুলাই প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠানে সিদ্ধান্ত দলের স্থায়ী বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।ঢাকায় ২৯ জুলাই মহানগর উত্তর এবং ৩০ জুলাই মহানগর দক্ষিণ বিক্ষোভ করবে।’

তিনি বলেন, ‘সরকারের নিজস্ব ব্যবসায়ীদের মুনাফার স্বার্থের জন্য পরিকল্পিতভাবে নিয়মনীতি বিসর্জন দিয়ে চাহিদার অতিরিক্ত বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন, কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টের সুযোগ প্রদানের ভয়াবহ দুর্নীতির কারণে ক্যাপাসিটি চার্জ বাবদ প্রচুর অর্থ ব্যয় করার ফলে বর্তমানে এই অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে।’

এসব বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের ক্ষেত্রে ‘ইনডেমনিটি আইন তৈরি’ করে নজিরবিহীন দুর্নীতি ও লুটপাট করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব।

ফখরুল বলেন, এখন শহরে ২-৩ ঘণ্টা এবং গ্রামাঞ্চলে ৫-৬ ঘণ্টা লোডশেডিং জনজীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। শিল্পে ও কৃষিতে উৎপাদন ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।জ্বালানি সরবরাহ নিশ্চিত না করেই বিদ্যুৎ কেন্দ্র বসানোয় সমস্যা জটিল হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘দেশে গ্যাস উৎপাদন বৃদ্ধির কোনো উদ্যোগ না নিয়ে বিদেশ থেকে গ্যাস আমদানির লক্ষ্যই হচ্ছে চুরি এবং নিজস্ব দলের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে নিজেদের দুর্নীতি ও অনৈতিক সম্পদের পাহাড় গড়ে তোলা। শুধুমাত্র লোভের কারণে আজকে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতকে অন্ধকারের পথে নিয়ে গিয়েছে সরকার।’

গতকাল (সোমবার) রাতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে দলের স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত জানাতে আজ (মঙ্গলবার) সংবাদ সম্মেলন করেন ফখরুল।

শেয়ার করুন