০৫ ডিসেম্বর ২০২২, সোমবার, ০৩:১৬:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বাগমারায় ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতির বাড়ি থেকে মাদক উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৪-০৯-২০২২
বাগমারায় ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতির বাড়ি থেকে মাদক উদ্ধার, গ্রেপ্তার ১

রাজশাহীর বাগমারায় নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদক ১৯ বোতল ফেন্সিডিল ও ৫ পিচ ইয়াবাসহ নাসির উদ্দীন (২৪) নামের এক মাদক কারবারীকে আটক করেছেন বাগমারা থানার পুলিশ। আটককৃত নাসির উদ্দীন উপজেলার গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের চেউখালী গ্রামের শাখাওয়াত হোসেনের ছেলে। ওই ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে সোহেল রানা ও নাসির উদ্দীন নামের দুই মাদক কারবারীর বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।


বাগমারা থানার পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদে জানতে পারেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে দুইজন মাদক কারবারী গোয়ারকান্দি ইউনিয়নের রামরামা এলাকায় মাদক বিক্রি করছেন। এমন সংবাদের ভিত্তিত্বে বাগমারা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিলালুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের রামরামা এলাকায় অভিযানে যান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক কারবারী সোহেল রানা সটকে পড়লেও নাসির উদ্দীন নামের একজনকে আটক করে। এ সময় তার কাছ থেকে ১৯ বোতল ফেন্সিডিল ও ৫ পিছ ইয়াবা উদ্ধার করে।


এলাকাবাসীর অভিযোগ, ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী যুবলীগের নাম ভাঙ্গিয়ে দীর্ঘ দিন থেকে মাদক কারবারী সোহেল রানা ও নাসির উদ্দীন গোয়ালকান্দি ইউনিয়ন, তাহেরপুর পৌরসভাসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় নিষিদ্ধ ঘোষিত মাদক সর্বরাহ করে আসছে। মাদক কারবারীদের ভয়ে এলাকার সাধারন মানুষ মুখ খুলতে পারে না। কেউ প্রতিবাদ করলেই তাকে নানা ভাবে হেনেস্তা ও হয়রানীর শিকার হতে হয়। যার কারনে এলাকার লোকজন তাদের ভয়ে মুখ খুলে না। মঙ্গলবার রাতে পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে গোয়ালকান্দি ইউনিয়নের রামরামা এলাকায় অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিত টের পেয়ে মাদক সম্রাট সোহেল রানা পালিয়ে গেলেও নাসির উদ্দীন মাদকসহ পুলিশের হাতে আটক হয়।


এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি রবিউল ইসলাম জানান, মাদকসহ নাসির উদ্দীনকে আটক করা হয়েছে। আরেক মাদক কারবারী সোহেল রানা পালিয়ে গেছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। অল্প সময়ের মধ্যে মাদক সম্রাট সোহেল রানাকে আটক করা হবে বলে তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন