০৯ অগাস্ট ২০২২, মঙ্গলবার, ০৯:৫৯:০২ অপরাহ্ন
জার্মানি ইউরোপের নিরাপত্তার ভারসাম্য নষ্ট করছে: রাশিয়া
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৫-০৬-২০২২
জার্মানি ইউরোপের নিরাপত্তার ভারসাম্য নষ্ট করছে: রাশিয়া

জার্মান পার্লামেন্ট দেশটির জন্য ১০০ বিলিয়ন ইউরোর সামরিক বাজেট অনুমোদন দিয়ে যে বিল পাস করেছে, তার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে রাশিয়া।

রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছেন, এর মধ্য দিয়ে জার্মানি ইউরোপের নিরাপত্তাকে ভারসাম্যহীনতায় ফেলে দিয়েছে। খবর রয়টার্সের।

তিনি আরও বলেছেন, রাশিয়ার ইউক্রেন অভিযানে ভীত হয়ে জার্মানি তার সামরিক ব্যয় বাড়ানোর পদক্ষেপ নিয়েছে।

জার্মান পার্লামেন্ট গত শুক্রবার দেশটির সামরিক বাহিনীর আধুনিকায়নের জন্য ১০৭৩ কোটি ডলার অনুমোদন করেছে।

এ অর্থ দিয়ে সেনাবাহিনীর জন্য যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান ও চিনুক হেলিকপ্টার এবং ইসরাইলের তৈরি হেরোন ড্রোনসহ আধুনিক সব সমরাস্ত্র কেনা হবে।

জার্মানির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ শুক্রবার সেনাবাহিনীর জন্য বিশেষ তহবিলের মাধ্যমে এ অর্থ অনুমোদন করেছে।

৫৬৭ আসনের সংসদে চ্যান্সেলর ওলাফ স্কলজের বামপন্থি জোটের সদস্য সংখ্যাই বেশি। শুক্রবার সেনাবাহিনীর এ বিলের বিরুদ্ধে ভোট পড়ে ৯৬টি এবং ভোটদানে বিরত ছিলেন ২০ এমপি।

জার্মানির প্রধান বিরোধী দল ক্রিস্টান ডেমোক্র্যাটও সরকারি দলের আনা এ বিলে সমর্থন দেয়।

রাশিয়া যখন ইউক্রেনে বিশেষ সামরিক অভিযান চালাচ্ছে এবং জার্মানি এই অভিযানের ঘোরতর বিরোধিতা করছে, তখন এই বিশাল অঙ্কের সামরিক বাজেট অনুমোদন করা হলো।  বিগত বছরগুলোতে জার্মানির সামরিক বাজেট ছিল গড়ে ৫০ বিলিয়ন ইউরো।

সামরিক খাতে বাজেট দ্বিগুণ করার জন্য জার্মানিকে সংবিধান সংশোধন করতে হয়েছে এবং এ জন্য দেশটির বিরোধী দলগুলোর সমর্থন প্রয়োজন হয়।

রাশিয়া ইউক্রেনে সামরিক অভিযান শুরু করার কয়েক দিন পর গত ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলজ সামরিক খাতে এই তহবিল গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন।

জার্মান পার্লামেন্টে ভাষণ দিতে গিয়ে শোলজ বলেছিলেন, আমাদের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার জন্য আমাদের দেশের নিরাপত্তায় আরও বেশি বিনিয়োগ করতে হবে।

শেয়ার করুন