০৫ অক্টোবর ২০২২, বুধবার, ১০:২১:০৩ অপরাহ্ন
রাজশাহীতে আমের বাজারে আগুন, গত বছরের চেয়ে তিনগুণ দাম বৃদ্ধি
  • আপডেট করা হয়েছে : ১০-০৬-২০২২
রাজশাহীতে আমের বাজারে আগুন, গত বছরের চেয়ে তিনগুণ দাম বৃদ্ধি

গত ২০ মে থকেে রাজশাহীর বাজারে এসছেে সুমষ্টি আম। গুটি আম দয়িে শুরু হলওে গোপালভোগ আমরে দকিে নজর ছলি সবার। তব,ে গতবছররে তুলনায় বাজারে প্রকারভদেে দ্বগিুণ থকেে তনিগুন আমরে দাম। আমরে। আমচাষি ও বাগান মালকিরা বলছনে, বরৈী আবহাওয়ার কারণে আমরে মুকুল ঝরে পড়ছে।ে এর ফলে বাগানে আমরে পরমিাণ গত বছররে তুলনায় র্অধকেরেও কম। উৎপাদন কমে যাওয়ায় মৌসুমরে শুরু থকেইে চড়া দামে বক্রিি হচ্ছে আম।

বঁেধে দযে়া নদিৃষ্ট সময়রে প্রথম দনি থকেইে রাজশাহীর বাজারে বভিন্নি গুটি ও গোপালভোগ জাতরে আম উঠছে।ে গোপাল আম বশেদিনি বাজারে থাকে না। র্বতমানে বাজারে গোপালভোগ প্রায় শষে। এখন হমিসাগর বাজার মাতাচ্ছ।ে

রাজশাহীর সাহবোজার কাঁচাবাজার, উপশহর নউির্মাকটে, রলেগটে, স্টশেন, শালবাগানসহ শহররে বভিন্নি স্থানে বক্রিি হচ্ছে মৌসুমী  আম। খুচরা বক্রিতোরা ভ্যানে করে বক্রিি করছনে রাস্তার পাশে দাঁড়য়িে আবারো কওে পাড়া মহল্লায় ফরেি কর।ে

১০ জুন শুক্রবার সকালে নগরীর শালবাগান আমরে আড়ত থকেে গোপালভোগ আম নয়িে উপশহর এলাকায় বক্রিি করছলেনে মানকি ।তনিি বলনে, গাছে এবার আম খুব কম। তাই দাম বশে।ি গোপালভোগ আম বক্রিি করছি ৭০ থকেে ৮০ টাকা কজেি দর।ে

পুঠয়িার বানশ্বের আমরে হাটে খােঁজ নয়িে জানা গছে,ে প্রতি মণ কাঁচা গোপালভোগ আম চাষদিরে কাছ থকেে আড়তগুলোতে কনো হয়ছেে  ২৯০০ থকেে ৩ হাজার  টাকা মণ দর।ে দু-এক দনিরে মধ্যে দাম আরও বাড়বে বলে জানয়িছেনে ব্যবসায়ীরা। এছাড়া অন্যান্য আমরে মধ্যে খরিসাপাত বা হমিসাগর ও ল্যাংড়া প্রতি মণ (৪০ কজে)ি ২৫০০ থকেে ২৬০০ টাকা দরে বক্রিি হচ্ছ।ে

সবচযে়ে কমদামী আম লক্ষন ভোগ বা লখনা বক্রিি হচ্ছে ১৫ থকেে ১৬০০ টাকা মন দরে । যার প্রতি কজেরি দাম পড়ছে ৩৫ থকেে ৪০ টাকা এবং গুটি জাতরে আম ১৩ থকেে ১৫০০ টাকা দরে বক্রিি হচ্ছ।ে

 কবেল আসতে শুরু করছেে ল্যাংড়া আম। ৮০ টাকা কজেি হসিবেে বক্রিি হচ্ছ।ে

শালবাগান ফলরে মোকামে খােঁজ নয়িে জানা যায়, এবারে আমরে বশে চাহদিা রয়ছে।ে অনলাইনে বক্রিি হচ্ছে আম। খুচরা কংিবা পাইকারি বাজাররে তুলনায় অনলাইনে প্রতকিজেি আমে ১৫ থকেে ২০ টাকা বশেি দরে বক্রিি হচ্ছ।ে

বানশ্বের আম ব্যবসায়ী সমতিরি সভাপতি আলহাজ্ব সাইফুল ইসলাম বলনে, চাঁপাইয়রে কানসাটরে পরইে বানশ্বের বাজার। প্রতবিছর কয়কে কোটি টাকার আম বঁেচাকনো হয়। বাজারে আমচাষ,ি ব্যবসায়ীরা এবার বশে উৎফুল্ল। ল্যাংড়া আসতে শুরু করছে।ে দাম গতবাররে তুলনায় এবার মণে ৫ থকেে ৬০০ টাকা বশে।ি এখান থকেে আম কনিে লাভ করইে বক্রিি করছনে খুচরা বক্রিতোরা। শহররে ভতেরে আরো বশেি দাম। হাটে যে আম ৫০ টাকা কজেি ,সটো খুচরা বাজারে ৮০ টাকার কম পাওয়া যাচ্ছে না।

জলো ও বভিাগীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধদিপ্তররে তথ্য অনুযায়ী, রাজশাহী কৃষি অঞ্চলে চলতি মৌসুমে আমবাগান রয়ছেে ৯০ হাজার ৮৯৮ হক্টের। এসব জমতিে আমরে উৎপাদন হবে প্রায় ৯ লাখ ৫৬০ মট্রেকিটন আম। হক্টেরে প্রায় ১০ দশমকি ৫৬ টন হসিবেে ফলন ধরা হয়ছে।ে প্রতকিজেি আমরে দাম গড়ে ৬০ টাকা হসিবেে ৫ হ্জাার ৭৬০ কোটি টাকার বাণজ্যি সম্ভবনা রয়ছেে

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধদিপ্তররে উপ-পরচিালক মোজদার হোসনে বলনে, বাজারে র্সবপ্রথম গুটি জাতরে আম আগে আস।ে র্পযায়ক্রমে গোপালভোগ, ল্যাংড়া, ফজল,ি আশ্বনিা আম বাজারে আস।ে এখন বাজারে  গোপাল,খরিসাপাত, রানপিশন,হমিসাগর ও লখনা।

শেয়ার করুন