১৯ অগাস্ট ২০২২, শুক্রবার, ১১:০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন
২৬ মাস পর বাংলাদেশ-ভারত ট্রেন চলাচল শুরু
  • আপডেট করা হয়েছে : ২৯-০৫-২০২২
২৬ মাস পর বাংলাদেশ-ভারত ট্রেন চলাচল শুরু

২৬ মাস পর ফের চালু হয়েছে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে আন্তর্জাতিক রেলপথ। আজ থেকে ঢাকা-কলকাতা মৈত্রী এক্সপ্রেস ও খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। আর আগামী ১ জুন ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি রেলপথে মিতালী এক্সপ্রেস ট্রেনের উদ্বোধন হবে।


রবিবার (২৯ মে) সকাল সোয়া ৮টায় ঢাকার ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশন থেকে ১৬৫ জন যাত্রী নিয়ে কলকাতার উদ্দেশে ছেড়ে যায় মৈত্রী এক্সপ্রেস।


জানা গেছে, ট্রেনটিতে মোট আসন রয়েছে ৪৫৬টি। ১৭০টি টিকিট বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে বিদেশি (ভারত) যাত্রী ১৬ জন। একজন ইন্দোনেশিয়ার। ট্রেনটি বিকেল ৪টায় কলকাতা স্টেশনে পৌঁছাবে। এরপর সোমবার (৩০ মে) আবার কলকাতা থেকে যাত্রী নিয়ে ঢাকা আসবে।


অন্যদিকে রবিবার স্থানীয় সময়  সকাল ৭টা ১০ মিনিটে কলকাতার পুরনো চিৎপুরের আন্তর্জাতিক রেলস্টেশন থেকে খুলনার উদ্দেশে যাত্রা করেছে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ ট্রেন। বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্ত হয়ে আজ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বন্ধন এক্সপ্রেসের খুলনায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। ট্রেনটি আবার আজ বেলা ৩ টায় খুলনা থেকে কলকাতার উদ্দেশে যাত্রা করবে।


আজ ফের চালু হচ্ছে বন্ধন ও মৈত্রী সার্ভিসআজ ফের চালু হচ্ছে বন্ধন ও মৈত্রী সার্ভিস

উল্লেখ্য, ঢাকা-কলকাতার মধ্যে মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচল শুরু হয় ২০০৮ সাল থেকে। বন্ধ হওয়ার আগে বৃহস্পতিবার বাদে সপ্তাহের সব দিনই এই ট্রেন চলাচল করত। আজ রবিবার থেকে আগের মতোই চলাচল করবে। খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস চালু হয় ২০১৭ সালে। বাংলাদেশ থেকে বৃহস্পতিবার ও রবিবার দুই দিন এই ট্রেন ছেড়ে যাবে। ভারত থেকে আসবে দুই দিন। রেলওয়ে অপারেশন দপ্তর জানায়, মিতালী এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি পর্যন্ত এসি বার্থের ভাড়া হবে ৪ হাজার ৯০৫ টাকা। এসি সিটের ভাড়া ৩ হাজার ৮০৫ টাকা। আর এসি চেয়ারের ভাড়া ২ হাজার ৭০৫ টাকা।

শেয়ার করুন