১২ জুলাই ২০২৪, শুক্রবার, ১১:৩০:১১ অপরাহ্ন
রাজধানীজুড়ে তীব্র যানজট, ভোগান্তি চরমে
  • আপডেট করা হয়েছে : ১৩-০৯-২০২২
রাজধানীজুড়ে তীব্র যানজট, ভোগান্তি চরমে

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ভোররাত থেকে রাজধানীতে হচ্ছে টানা বৃষ্টি। দুপুর ২টা পর্যন্ত অব্যাহত রয়েছে বৃষ্টি। এতে নগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। এর ওপর রাজধানীজুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন রাজধানীবাসী।


যানজট নিয়ন্ত্রণে হিমশিম খাচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ। তারা জানিয়েছেন, ভারি বর্ষণ এবং জলাবদ্ধতার কারণে পুরো শহরে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে বিমানবন্দর সড়ক তথা তেজগাঁও থেকে উত্তরার আব্দুল্লাহপুর, মালিবাগ থেকে খিলক্ষেত, মিরপুর-১০ থেকে বিজয় সরণি, কারওয়ান বাজার হয়ে শাহবাগ পর্যন্ত যানজটের মাত্রা বেশি।


সকাল ১০টায় মিরপুর-১৪ নম্বর থেকে বিহঙ্গ পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন ইকবাল হোসেন। গন্তব্য শাহবাগের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। এই পথটুকু যেতে তার প্রায় আড়াই ঘণ্টা লেগেছে। মুঠোফোনে আলাপকালে ইকবাল হোসেন বলেন, মিরপুর-১৪ নম্বর থেকে হেঁটে গেলেও শাহবাগ যেতে এত সময় লাগতো না। বৃষ্টির কারণে বাসেই বসে থাকতে হয়েছে। দীর্ঘ সময় বাসে বসে থেকে অনেক যাত্রীই ভোগান্তিতে পড়েছেন।


তিনি বলেন, এই পথের মধ্যে মিরপুর-১০, কাজীপাড়া, আগারগাঁও, বিজয় সরণি, ফার্মগেট ও কারওয়ান বাজার এলাকায় যানজট বেশি ছিল। পুলিশের ট্রাফিক বিভাগককেও অসহায় দেখা গেছে।


বেলা ১১টায় উত্তরার রাজলক্ষ্মীর সামনে থেকে সদরঘাটগামী আজমিরী পরিবহনে ওঠেন আলমগীর হোসেন। দুপুর দেড়টায় নামেন মহাখালী জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সামনে।


আলমগীর হোসেন জানান, এই পথে আসতে তার সময় লেগেছে প্রায় আড়াই ঘণ্টা। অথচ রাস্তা ফাঁকা থাকলে মাত্র ২০-২৫ মিনিটেই মহাখালী পৌঁছানো যায়। এমন ভোগান্তির কথা জানলে আজ বাসা থেকে বের হতাম না।



বিমানবন্দর সড়কে যানজটের চিত্র তুলে ধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্টাটাস দেন আহমেদ মোস্তফা কামাল নামে এক ব্যক্তি। তিনি লেখেন, মগবাজার থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত কয়েক কিলোমিটার যানজট। ওদিকে গাজীপুর থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত। বিকল্প পথ ধরতে গিয়ে যানজট ছড়িয়ে পড়েছে তেজগাঁও, গুলশান, বনানীসহ আশপাশের এলাকায়। গুগল ম্যাপ লালে লাল। ফেসবুকের ট্রাফিক অ্যালার্ট গ্রুপ থেকে জানা যায়, ভিআইপি মুভমেন্টের কারণে সব গাড়ি বন্ধ করে রাখা হয়েছে বিমানবন্দরের কাছে। আমিও তিন ঘণ্টা ধরে পথেই বসে আছি। কিছু বলবো না। অসহ্য।


পুলিশের ট্রাফিক উত্তর বিভাগ সূত্র জানায়, গাজীপুরের টঙ্গীর চেরাগ আলী মার্কেটের আশপাশের এলাকায় সড়কে বৃষ্টির পানি জমায় তীব্র যানজট তৈরি হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায়।


উত্তরা ট্রাফিক বিভাগের ডেপুটি কমিশনার নাবিত কামাল শৈবাল সাংবাদিকদের বলেন, গাজীপুরে মুন্নু সিরামিকের সামনের রাস্তা ভাঙা থাকায় সেখানে সড়কে বৃষ্টির পানি জমেছে। ফলে তীব্র যানজট তৈরি হয়েছে। তবে উত্তরা থেকে বনানীমুখী রাস্তা ফাঁকা।

শেয়ার করুন