০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, সোমবার, ০৮:৪১:০৬ পূর্বাহ্ন
একটিই পথ বাংলাদেশের সামনে
  • আপডেট করা হয়েছে : ০২-১১-২০২২
একটিই পথ বাংলাদেশের সামনে

এবারের আসরের আগে টি ২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্বে কোনো জয় ছিল না বাংলাদেশের। এবার সুপার টুয়েলভে প্রথম তিন ম্যাচের দুটি জিতে এরইমধ্যে নিজেদের সফলতম টি ২০ বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছেন সাকিব আল হাসানরা। এখন হাতছানি প্রথমবার বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার। পথ অবশ্য বেশ কঠিন। শেষ দুই ম্যাচে হারাতে হবে দুই সাবেক চ্যাম্পিয়ন ভারত ও পাকিস্তানকে। দুই ম্যাচের একটিতে হারলেও বিপদ অবশ্যম্ভাবী। তখন তাকিয়ে থাকতে হবে গ্রুপের অন্য ম্যাচগুলোর দিকে। তাই বাংলাদেশের সামনে পথ একটিই-বাকি দুই ম্যাচ জেতা।

দুই নম্বর গ্রুপের এথম তিন রাউন্ড শেষে পাঁচ দলের সামনে সুযোগ রয়েছে শেষ চারে যাওয়ার। টানা তিন হারে নেদারল্যান্ডসের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে এরইমধ্যে। বাকি দলগুলোর জন্য গাণিতিক বিবেচনায় যেকোনো কিছু সম্ভব। তবে মাঠের লড়াইয়ের পাশাপাশি বৃষ্টির কথাও মাথায় রাখতে হবে সব দলকে। কোনো ম্যাচ বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হলে ওলটপালট হয়ে যাবে গ্রুপের সমীকরণ।

আজ অ্যাডিলেডে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও ভারত এবং জিম্বাবুয়ে ও নেদারল্যান্ডস। আগামীকাল সিডনিতে দেখা হবে পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকার। অ্যাডিলেডে আজ বৃষ্টির সম্ভাবনা ৬০ শতাংশ। তবে তাতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ।

তিন ম্যাচে পাঁচ পয়েন্ট নিয়ে এই গ্রুপে সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ভালো রানরেটের কারণে পাকিস্তান ও নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচের একটিতে জিতলেই সেমির টিকিট পেয়ে যাবে তারা। বাংলাদেশের মতোই তিন ম্যাচে চার পয়েন্ট ভারতের। বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাকি দুই ম্যাচ জিতলে কোনো সমীকরণ ছাড়াই সেমিতে চলে যাবে রোহিত শর্মার দল। ভারত যদি বাংলাদেশের বিপক্ষে জেতে ও জিম্বাবুয়ের কাছে হারে, তাহলে সেমিতে দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গী হতে পারে জিম্বাবুয়ে। উলটোটা হলে শেষ চারে চলে যেতে পারে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকা। তিন ম্যাচে পাকিস্তানের পয়েন্ট দুই। শেষ দুই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশকে বড় ব্যবধানে হারাতে পারলে এবং অন্য সব ম্যাচের ফল পক্ষে এলে সেমিতে যেতে পারবে তারা। পাকিস্তান শেষ দুই ম্যাচ জিতলে এবং বাংলাদেশের কাছে হারার পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ভারত জিতলে এশিয়ার তিন দলেরই পয়েন্ট হবে সমান ছয় করে। সেক্ষেত্রে রানরেটে একটু এগিয়ে থাকায় সেমিতে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকবে পাকিস্তানের। তিন ম্যাচে তিন পয়েন্ট পাওয়া জিম্বাবুয়ের সামনে বাকি দুই ম্যাচে নেদারল্যান্ডস ও ভারতের বিপক্ষে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। এক ম্যাচে হারলেও শেষ হয়ে যাবে তাদের আশা।

হেড টু হেড

ম্যাচ : ১১

বাংলাদেশ জয়ী : ১

ভারত জয়ী : ১০

শেয়ার করুন