১৩ অগাস্ট ২০২২, শনিবার, ০৯:৫৩:২৩ অপরাহ্ন
চট্টগ্রামে করোনায় শনাক্তের হার ১১ শতাংশ
  • আপডেট করা হয়েছে : ২০-০৬-২০২২
চট্টগ্রামে করোনায় শনাক্তের হার ১১ শতাংশ

দেশে করোনার প্রকোপ আবারও বাড়ছে। সংক্রমণ ১১ সপ্তাহ নিম্নমুখী থাকার পর দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা গত ১২ জুন ১০০ ছাড়িয়ে যায়। এর পর থেকে সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতিতে রয়েছে।

ঢাকার মতো চট্টগ্রাম জেলায়ও করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী।  

নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে দৈনিক শনাক্ত সংক্রমণের হার আবার ১১ শতাংশ ছাড়িয়েছে সেখানে।

চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানিয়েছে, সোমবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ২৬৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৩১ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

তাতে দৈনিক শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ১১ দশমিক ৫৬ শতাংশ, যা আগের দিন ৩ দশমিক ৬৯ শতাংশ ছিল।

এ তথ্য দিয়ে সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াস চৌধুরী জানান, নতুন রোগীদের ৩০ জনই চট্টগ্রাম নগরীর বাসিন্দা। আর একজন নগরী সংলগ্ন কর্ণফুলী উপজেলার। 

মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে ২৯ মে পর্যন্ত বন্দরনগরী চট্টগ্রামে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা শূন্যের ঘরে ছিল। দুই মাসের মতো সময়ে জেলায় নতুন কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি।

মে মাসের শেষ দিন নতুন রোগী শনাক্ত হতে শুরু করে। এর পর ১৩ জুন থেকে নিয়মিত করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে।

মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট এক লাখ ২৬ হাজার ৭৭০ জনের কোভিড ধরা পড়েছে চট্টগ্রাম জেলায়। তাদের ৯২ হাজার ২২৬ জনই নগরীর বাসিন্দা।

এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জেলায় ১৩৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের ৭৩৪ জন নগরীর এবং ৬২৮ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা ছিলেন।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির মধ্যে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায় রোববার। এদিন ৫৯৬ জনের দেহে ধরা পড়ে করোনা, যা ১৫ সপ্তাহের মধ্যে সর্বোচ্চ। 

এই সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে ১৬৩ জন বেশি; শনিবার ৪৩৩ জনের আক্রান্ত হওয়ার খবর দিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

গত ২০ এপ্রিল করোনায় মৃত্যুর খবর দিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এর পর টানা ৩০ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য দিন পার করে বাংলাদেশ। সম্প্রতি করোনায় মৃত্যু না হলেও আক্রান্তের সংখ্যা আগের চেয়ে বাড়ছে।

শেয়ার করুন