৩০ জানুয়ারী ২০২৩, সোমবার, ০১:৫১:২২ অপরাহ্ন
পর্যটন মেলা শুরু, চলবে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত
  • আপডেট করা হয়েছে : ০১-৬-২০২২
পর্যটন মেলা শুরু, চলবে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত

দেশ-বিদেশের পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপো (বিআইটিটিআই) আয়োজন করেছে অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব)। বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে মেলার উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী।


৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকবে মেলা।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিআইটিটিআইয়ের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আটাব সভাপতি মঞ্জুর মোর্শেদ। পরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বাংলাদেশে পর্যটন খাতের উন্নয়নে বিভিন্ন পরিকল্পনার কথা জানান। এছাড়া এ ধরনের মেলা দেশি-বিদেশি পর্যটক আকৃষ্ট করতে সহায়ক হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।


উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।


আটাব জানায়, এবারের মেলায় ১৫টির বেশি দেশ অংশ নিচ্ছে। এর মাঝে রয়েছে ভারত, মালয়েশিয়া, ভুটান, নেপাল, মালদ্বীপ, ওমান, শ্রীলঙ্কা, তুরস্ক, আজারবাইজান, দক্ষিণ কোরিয়া, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর, সংযুক্ত আরব আমিরাত। এছাড়াও বিভিন্ন দেশের এয়ারলাইন্স, হসপিটাল, ট্যুরিজম বোর্ড, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট, ক্রুজ লাইনার, ডেস্টিনেশন ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি ও অন্যান্য ট্রাভেল ও ট্যুরিজম সংশ্লিষ্ট সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে মেলায়।


এছাড়া মেলায় প্রোডাক্ট ব্রান্ডিং, বিদেশি মুদ্রা অর্জনে দেশের পর্যটন সেবার মান উন্নয়ন ও বিক্রির বাজার সৃষ্টিসহ নানান বিষয়ে সেমিনার, গোলটেবিল আলোচনা, কর্মশালা, বিটুবি সেশনসহ আকর্ষণীয় সব আয়োজন থাকবে।


পর্যটন মেলায় স্টল দিয়েছে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন। এই স্টলে দেশের বিভিন্ন পর্যটন এলাকাগুলোতে নিজস্ব হোটেল, মোটেল, ট্যুর প্যাকেজসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা তুলে ধরছে প্রতিষ্ঠানটি।


জানতে চাইলে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান মো. আলি কদর জাগো নিউজকে বলেন, বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপোতে পর্যটন করপোরেশনের সেবাগুলো তুলে ধরা হয়েছে। এছাড়া বছরব্যাপী পর্যটন করপোরেশনের বিভিন্ন কর্মসূচি বা যেসব সেবা দিয়ে থাকে তা উপস্থাপন করা হচ্ছে।




মেলায় বিভিন্ন রুটের টিকিটে ছাড় দিচ্ছে বেসরকারি এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা। প্রতিষ্ঠানটির মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) কামরুল ইসলাম জানান, শীতের মৌসুমে অভ্যন্তরীণ রুটের মধ্যে কক্সবাজার, সিলেট উড়োহাজাজের টিকিটের বেশি চাহিদা থাকে। এছাড়া ভারত, মালদ্বীপ, থাইল্যান্ডসহ অন্যান্য দেশের রুটেও চাহিদা আছে তাদের।


এই মেলা উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনকেন্দ্রে প্রতিদিন একটি করে ট্যুরিজম সংশ্লিষ্ট সেমিনার করা হবে। প্রথম দিন দেশের পর্যটনখাতে বিনিয়োগ সম্ভাবনা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে। এই সেমিনারে সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান লোকমান হোসেন মিয়া।


দ্বিতীয় দিনে দেশের অ্যাভিয়েশন ও পর্যটন বিশ্বের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার সুযোগ শীর্ষক সেমিনার হবে। এতে সভাপতিত্ব করবেন বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোকাম্মেল হোসেন। তৃতীয় দিন হবে ডিজিটাল যুগে পর্যটন শীর্ষক সেমিনার। সভাপতিত্ব করবেন আটাবের সভাপতি।


জানতে চাইলে আটাবের সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ জাগো নিউজকে বলেন, পর্যটন খাতের বিকাশের উদ্দেশ্যেই এই আয়োজন করা হয়েছে। করোনা পরবর্তী সময়ে যেভাবে অভ্যন্তরীণ পর্যটন বিকাশ লাভ করেছ, এই মেলার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যাতে দেশের পর্যটন ছড়িয়ে পড়ে, সেই ব্যবস্থা করতে চাই। এছাড়া মেলা দেশি-বিদেশি ট্রাভেল এজেন্সি ও ট্যুর অপারেটরদের মধ্যে সম্পর্ক তৈরিতে ভূমিকা রাখবে।

শেয়ার করুন