০১ অক্টোবর ২০২২, শনিবার, ০৫:২১:৬ পূর্বাহ্ন
শাহজালালে দুই বিমানের সংঘর্ষ, তিন কর্মকর্তা বরখাস্ত
  • আপডেট করা হয়েছে : ০৭-০৭-২০২২
শাহজালালে দুই বিমানের সংঘর্ষ, তিন কর্মকর্তা বরখাস্ত

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুটি উড়োজাহাজের সংঘর্ষের ঘটনায় মুখ্য প্রকৌশলীসহ রাষ্ট্রীয় সংস্থাটির ৩ কর্মকর্তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।


বরখাস্তরা হলেন- মুখ্য প্রকৌশলী মো. হারুন-উর-রশিদ চৌধুরী, প্রকৌশল কর্মকর্তা শাহ হক নেওয়াজ ও জুনিয়র টেকনিক্যাল কর্মকর্তা নুরুল আলম। 


বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার এ তথ্য জানিয়েছেন।তিনি জানান, বিমানের গঠন করা ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়। পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শেষে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


এদিকে বিমানের এক আদেশে বলা হয়, বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি ক্যাপ্টেন এনামুল হক তালুকদারের নেতৃত্বে ৪ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী দায়ীদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।


গত ৩ জুলাই বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুটি উড়োজাহাজের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।দিবাগত রাত সোয়া ৯টায় রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনারের ডানায় (উইং) বিমানেরই আরেকটি ৭৩৭ উড়োজাহাজের ডানা আঘাত করে।এতে বিমানের উড়োজাহাজ বোয়িং-৭৮৭ এবং বোয়িং-৭৩৭ এর ডানা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।


বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, বিমান দুটির মধ্যে একটি আগে থেকেই পার্ক করা অবস্থায় ছিল। অন্যটি যাত্রী নামিয়ে পার্কিংয়ের দিকে আসছিল। তখনই এই সংঘর্ষ হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে সংঘর্ষের কারণে ৭৮৭ উড়োজাহাজের ডান পাশের ডানা এবং ৭৩৭ উড়োজাহাজের বাম পাশের ডানা ক্ষতিগ্রস্ত হয়।


জানা যায়, বিমানের সুপরিসর বোয়িং ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজটি সিঙ্গাপুর থেকে এসে সন্ধ্যায় শাহজালালে অবতরণ করে। রাত ৯টা ২০ মিনিটে উড়োজাহাজটি নিয়মিত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য হ্যাঙ্গারে নিয়ে যাওয়ার সময় অঘটনটি ঘটে। সেখানে আগে থেকে রাখা বোয়িং ৭৩৭ এর বাম পাশের ডানায় সঙ্গে ড্রিমলাইনারের ডান পাশের ডানা আঘাত করে।


দুর্ঘটনায় বোয়িং-৭৩৭ এর বাম দিকের উইংয়ের লাইটের ওপরে ক্ষতিগ্রস্ত হয়, বোয়িং-৭৮৭ এর ডান উইংয়ের নিচের অংশে আঁচড় লাগে। এতে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা জানতে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ কাজ করছে।


এর আগে গত ১০ এপ্রিল বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে বিমানের একটি বোয়িংয়ের আরেকটি বোয়িংয়ের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে দুটো উড়োজাহাজই কিছু দিনের জন্য বসে যায়। সে ঘটনায় গত ১১ মে বিমানের মুখ্য (প্রিন্সিপাল) প্রকৌশলীসহ পাঁচজনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।


এরপর গত ৪ জুন বিমানের দাঁড়িয়ে থাকা একটি বোয়িং ৭৩৭ উড়োজাহাজে বেসরকারি এয়ারলাইন্স ইউএস বাংলার একটি ব্যাগবাহী ট্রলি এসে ধাক্কা দিলে উড়োজাহাজটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।


গত ১৬ জুন বিমানের একটি বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজ যাত্রী নামানোর পর অঘটনের শিকার হয়। নিয়মানুযায়ী বোর্ডিং ব্রিজের সঙ্গে উড়োজাহাজের দরজার সংযোগ না খুলেই সেটি পার্কিংয়ে নেওয়ার জন্য ধাক্কা (পুশব্যাক) দিতে শুরু করেন রক্ষণাবেক্ষণে নিযুক্ত কর্মীরা। 


ল্যান্ডিং গিয়ারে সমস্যা দেখা দেওয়ার পর ৭৪ জন যাত্রী নিয়ে রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ‘টেকনিক্যাল ল্যান্ডিং’ করে বিমানের অভ্যন্তরীণ রুটের ড্যাশ-৮ উড়োজাহাজটি।


এতে কোনো ক্ষয়ক্ষতি হযনি জানালেও বিমান কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত কমিটি করে।


বর্তমানে বিমানের বহরে থাকা ২১টি উড়োজাহাজের মধ্যে ছয়টি ড্রিমলাইনার।

শেয়ার করুন